নাগপুর: “আমরা ঠিক করেই ছিলাম যে একবারই ব্যাট করব। তার জন্য দরকার ছিল বড়ো পার্টনারশিপ। আমি দেড়দিন প্যাভিলিয়নে বসে অপেক্ষা করেছি। পিছ সম্পর্কে ধারণা তৈরি হয়েই গেছিল। তাই মাটিতে বল রেখে খেলার চেষ্টা করেছি। ৪০০ কানের লিগ খুবই ভালো। পিচ খারাপ হতে শুরু করেছে।” ১ বছর পর টেস্ট দলে সুযোগ পেয়ে আর চার বছর পর টেস্টে শতরান পেয়ে, দিনের শেষে এসবই বললেন রোহিত শর্মা। রবিবার ছিল তাঁর বলার দিন। একদিনের ক্রিকেটে তাঁর এবং কোহলির বহু পার্টনারশিপ দেখেছে বারত। এদিন দেখল টেস্ট ম্যাচে। পঞ্চম উইকেটে তাঁরা যোগ করলেন ১৭৩ রান।

এ সবের মধ্যেই টেস্টে নিজের পঞ্চম ডবল সেঞ্চুরিটি সেরে ফেললেন বিরাট। আউট হলেন ২১৩ রান করে। রোহিত নটআউট থাকলেন ১০২ রানে। ৬ উইকেটে ৬১০ রানের পাহাড়প্রমাণ ইনিংস যখন ভারত থামালো, তখনই শ্রীলঙ্কা প্রায় ম্যাচে হেরে বসে আসে। ইনিংস হার বাঁচাতেই করতে হবে ৪০৫।

দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে একটি ধাক্কাও খেয়ে গেল দ্বীপরাষ্ট্র। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই উইকেট হারাল তাঁরা। নিলেন ইশান্ত শর্মা। তৃতীয় দিনের শেষে শ্রীলঙ্কা ২১ রানে ১ উইকেট।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here