greg chappell sourav ganguly

ওয়েবডেস্ক: ২০০৫-এর মে মাসে জন রাইটের পরিবর্তে ভারতীয় দলের কোচ নির্বাচনের পালা চলছে। গ্রেগ চ্যাপেল ছাড়া কোচের দৌড়ে রয়েছেন টম মুডি এবং ডেসমন্ড হেনস। সৌরভের পছন্দ কার দিকে ছিল সেটা প্রায় সকল ভারতবাসীরই জানা। সেটাই যে সৌরভের জীবনে বড়ো বিপদ ডেকে আনল সেটাও কারও অজানা নয়। কিন্তু গ্রেগকে কোচ করার ব্যাপারে সৌরভ তথা বিসিসিআইকে আগে থেকেই সতর্ক করে দিয়েছিলেন কয়েক জন। তাদের সতর্কতা আগ্রাহ্য করা যে মুর্খামি হয়েছিল সেটাও তাঁর আত্মজীবনীতে মেনে নিয়েছেন মহারাজ।

গ্রেগকে কোচ করার বিরুদ্ধে ভারতীয় দলকে যিনি পরামর্শ দিয়েছিলেন, তিনি আর কেউ নন, স্বয়ং গ্রেগের দাদা ইয়ান। এই ব্যাপারে বোর্ডের তৎকালীন সর্বেসর্বা জগমোহন ডালমিয়াকে পরামর্শ দিয়েছিলেন ইয়ান। সৌরভে তাঁর বই ‘সেঞ্চুরি ইজ নট এনাফ’-এ লিখেছেন, “একদিন একটা জরুরি বৈঠকের জন্য ডালমিয়া তাঁর বাড়িতে আমাকে ডাকলেন। আমি যেতেই ডালমিয়া বললেন, ইয়ান চ্যাপেল তাঁকে বলেছে, যে তাঁর ভাইয়ের কোচিং-এর যোগ্যতা নিয়ে তিনি সন্দিহান। ভারতের পক্ষে তাঁকে কোচ করা ভালো হবে না।”

শুধু ইয়ানই নয়, চ্যাপেলের বিরুদ্ধে মত দিয়েছিলেন সুনীল গাভাস্কারও। সৌরভ বলেন, “সুনীল গাভাস্কার একদিন আমায় বললেন, ‘সৌরভ একটু ভেবে দেখো। গ্রেগকে ভারতীয় দলে তোমার সঙ্গে সমস্যা তৈরি হতে পারে। ওঁর অতীতের কোচিং রেকর্ডও কিন্তু ভালো নয়’।”

কিন্তু তিনি সব সতর্কতাকে অগ্রাহ্য করার সিদ্ধান্তই নিয়েছিলেন বলে জানালেন সৌরভ। তাঁর কথায়, “আমি সব সতর্কতা অগ্রাহ্য করে আমার মনের কথাকেই প্রাধান্য দিয়েছিলাম।”

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here