অশ্বিনের মাঁকড়ীয় আউট,ধোনির প্রতিবাদ: মুখ খুললেন প্রাক্তন আম্পায়ার সাইমন টফেল

দুটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা যা চলতি লিগে হটকেক হিসাবে দাঁড়ায় তা হল, অশ্বিনের রাজস্থান ব্যাটসম্যান বাটলারকে মাঁকড়ীয় পদ্ধতিতে আউট করা। দ্বিতীয়টি চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত না মানতে পেরে মাঠের বিতরে ঢুকে আম্পায়রদের সঙ্গে তর্ক করা।

0
taufel

ওয়েবডেস্ক: প্রায় অর্ধেক পেরিয়ে গেছে চলতি আইপিএল। ক্রিকেটারদের রান করা, উইকেট নেওয়ার থেকেও এমন কিছু ঘটনা ঘটেছে যা রীতিমতো খবরের শিরোনাম হয়েছে চলতি লিগে। দুটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা চলতি লিগে হটকেক হয়েছে। একটি হল, অশ্বিনের রাজস্থান ব্যাটসম্যান বাটলারকে মাঁকড়ীয় পদ্ধতিতে আউট করা। দ্বিতীয়টি চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত না মানতে পেরে মাঠের বিতরে ঢুকে আম্পায়রদের সঙ্গে তর্ক করা।

এবার এই দুটি বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন প্রাক্তন আন্তর্জাতিক আম্পায়ার এবং আইসিসির আম্পয়ার প্যানেলের প্রাক্তন সদস্য সাইমন টফেল।

আরও পড়ুন: ইপিএলের তারকাকে দলে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী বার্সেলোনা

অশ্বিন প্রসঙ্গে সাইমন টফেল জানান, “ক্রিকেটের স্পিরিটের সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই। যখন আমরা এই ব্যাপারে আলোচনা করছিলাম তখন নিয়মের ৪১.১৬ ধারা নিয়ে কথা বলছিলাম। নিয়ম এটাই বলে,যখন বোলাররা বল করতে আসে নন-স্ট্রাইকারদের ক্রিজ ছেড়ে এগোনো উচিত নয়। তাই আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী বোলাররা নন-স্ট্রাইকারদের আউট করতে পারবে যদি তারা ক্রিজের বাইরে বেড়িয়ে যায়। এবং বোলারদের হাত ডেলিভারি সুইংয়ের উপরে থাকবে। অশ্বিন শুধু আম্পায়রের কাছে আবেদন করেছিল। ক্রিকেটের স্পিরিটের সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই”।

অন্যদিকে ধোনি প্রসঙ্গে তিনি জানান, “সিদ্ধান্ত না মানতে পেরে ধোনি যখন আম্পায়ারদের দিকে এগিয়ে যায় তখন আমি কিছুটা অবাক হয়েছিলাম। কারণ কঠিন পরিস্থিতিতে কীভাবে নিজকে তৈরি করতে হয় তা ধোনি ভালো মতোই জানেন। যা আমি ওকে করতে দেখেছি। তবে চারপাশের পরিস্থিতি সম্বন্ধেও আমি জানি। ম্যাচের একটা চাপ থাকে। অনেক টাকার ব্যাপার। প্রচুর প্যাশন। তবে খেলার সঙ্গে জড়িত নয় এমন কোনো খেলোয়াড় বা দলের ম্যানেজমেন্ট সদস্য মাঠে ঢুকে আম্পয়ায়রের সঙ্গে তর্ক করছে তা কখনওই মানা যায় না। আম্পায়াররাও ওর সঙ্গে কথা বলে ওকে মাঠের বাইরে যেতে বলেনি। আম্পায়ারদের খেলোয়াড়দের কথার মাঝে থাকা উচিত নয়। কারও প্রভাবে না গিয়ে তাদের নিজেদের সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here