ইন্দ্রপতন অলিম্পিক টেনিসে। প্রথম রাউন্ডেই হেরে গেলেন শীর্ষ বাছাই নোভাক জকোভিচ। ৭-৬ (৭-৪), ৭-৬ (৭-২) সেটে বিজয়ী আর্জেন্তিনার খুয়ান মার্তিন দেল পোত্রো। এই পোত্রোর কাছেই চার বছর আগে লন্ডন অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ পদক পাওয়ার লড়াইয়ে হার মানতে হয়েহিল জকোভিচকে। সেই পরাজয়ের শোধ এ বারও তোলা হল না।

ও দিকে লন্ডন অলিম্পিকে সোনাজয়ী অ্যান্ডি মারে প্রথম রাউন্ডে সার্বিয়ার ভিক্টর ত্রইস্কিকে ৬-৩, ৬-২ সেটে হারিয়েছেন। কিন্তু ডাবলসে অ্যান্ডি ও  জ্যামি মারে ৭-৬ (৮-৬), ৭-৬ (১৬-১৪) সেটে হেরে যান ব্রাজিলের জুটি থমাস বেলুচ্চি ও আন্দ্রে সা-র কাছে।

২৯ বছরের টেনিসতারকা বিশ্ব ক্রম-তালিকায় একেবারে শীর্ষে থাকা জকোভিচ আড়াই ঘণ্টা হার স্বীকার করেন। খেলা শেষ হওয়ার পর অশ্রুসজল চোখে তিনি বলেন, “আমার জীবনের সব চেয়ে কঠিন হার। এটা এমন নয় যে, আমি এই প্রথম কোনও ম্যাচ হারছি বা জিতছি। কিন্তু অলিম্পিকের ব্যাপারটাই তো আলাদা।” জুনে ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতার পর ৪৭ বছরে জকোভিচই এক মাত্র খেলোয়াড় যিনি চারটি গ্র্যান্ড স্লাম জেতার অধিকারী হন। ২০০৮-এ অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ পাওয়ার পর অলিম্পিক পদক তাঁর অধরাই থেকে গিয়েছে।

২৭ বছরের দেল পোত্রো এক সময়ের ইউএস ওপেন বিজয়ী। তার পর গত দু’ বছর আঘাতজনিত কারণে বিশ্ব ক্রম-তালিকায় ১৪১ নম্বরে চলে যান। “বিশ্বের নাম্বার ওয়ানকে হারিয়েছি। এক অসাধারণ সন্ধ্যা, স্বপ্নের রাত” – উচ্ছ্বসিত দেল পোত্রো।       

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here