প্লাজা, ওয়েডসন, লালরেন্দিকার ত্র্যহস্পর্ষে লিগ শীর্ষেই লালহলুদ

0

ইস্টবেঙ্গল-৩          চেন্নাই সিটি-০

কলকাতা: নিজেদের ঘরের মাঠে মোহনবাগানকে ভালই বেগ দিয়েছিল আই লিগের শেষে থাকা চেনানই সিটি। গোল করে এগিয়েও গিয়েছিল, কিন্তু শেষ পর্যন্ত পয়েন্ট জোটেনি ফ্র্যানচাইজি দলটির। রবিবারের বারাসতেও প্রথমার্ধে যেন তারই রিপ্লে হচ্ছিল। চমৎকার খলছিলেন ধনপাল গণেশ, প্রশান্ত, রাজু-রা। মাঝে মধ্যে গোলের কাছাকাছি পৌঁছে যাচ্ছিলেন দুই স্ট্রাইকার চার্লস ও ট্যাঙ্ক। অন্যদিকে প্লাজা নিষ্প্রভ। নারায়ণ দাস, নিখিল পূজারিরা বারবার ভুল করছেন। লালহলুদ আলো জ্বলছিল না মোটেই। এর মধ্যেই ৪৪ মিনিটে গোলমুখে পৌঁছে গেছিলেন প্লাজা। গোল যদিও হয়নি।

মরগ্যানের ম্যাচ রিডিং-এর ফল বেঙ্গালুরু ম্যাচে পেয়েছিল ইস্টবেঙ্গল। এদিনও পেল। দ্বিতীয়ার্ধে চমকপ্রদ কিছু না হলেও, কিছুটা ডানা মেলল ব্রিটিশ কোচের দল। ৪৯ মিনিটে অধিনায়ক লালরেন্দিকার চমৎকার পাসটা অনায়াসে গোলে রাখলেন হাইতির মিডফিল্টার ওয়েডসন।

এরপর খেলার গতি কিছুটা বাড়ে। পাল্লা দিয়ে লড়ছিল চেন্নাই। দু-একবার চাপেও পড়ল ইস্টবেঙ্গল ডিফেন্স। কিন্তু ওইটুকুই। ৭৪ মিনিটে নিজের জন্য বরাদ্দ গোলটা দিয়ে দিলেন লালহলুদ সমর্থকদের নতুন নয়নমণি প্লাজা। তাতেও ছোঁয়া থাকল ওয়েডসনের। পাসটা তিনিই দিলেন। ম্যাচের শেষ মুহূর্তের পেনাল্টিতে গোল দিয়ে কেকের ওপর চেরি বসালেন অধিনায়ক লালরেন্দিকা রালতে। আই লিগে পাঁচ গোল হয়ে গেল ত্রিনিদাদ ও টোব্যাগোর স্ট্রাইকারের। 

৭ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শীর্ষেই থাকল লালহলুদ।

এরপর ডার্বি। আগামী রবিবার শিলিগুড়িতে মুখোমুখি হবে ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান।

এদিন পুনেতে অঘটন ঘটানোর দিকে অনেকটা এগিয়েও পারল না ডিএসকে শিবাজিয়ানস। বেঙ্গালুরু এফসি-র বিরুদ্ধে ২-০ এগিয়ে গিয়েও ব্যবধান ধরে রাখতে পারল না। ম্যাচ শেষ হল ২-২ ফলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.