ইস্টবেঙ্গল- ২(পেইন ২)    লাজং-১(ডিকা) 

শিলং: প্লাজা-ওয়েডসন নেই। তার ওপর ৫০০০ ফুট উঁচুতে খেলা। কিছুদিন আগেই আইজলের কাছে হারের স্মৃতি এখনও অটুট। টেনশনেই ছিলেন ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা। স্ব্স্তি বজায় রইল তাঁদের। ১২ ম্যাচের শেষে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে ১ নম্বরেই রইল লালহলুদ। প্লাজা-ওয়েডসনের অভাব মিটিয়ে উঠে এলেন নতুন বিদেশি তারকা। অস্ট্রেলিয়ার পেইন।

খেলা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই রবিনের ক্রস ধরতে পারলেন না লাজং-এর গোলকিপার। সুযোগ সন্ধানী স্ট্রাইকারের যাবতীয় দক্ষতা দেখিয়ে গোলে বল ঠেললেন পেইন। ম্যাচের তখন ৮ মিনিট।তারপর মাঠ জুড়ে ফুল ফোটাল লাল জার্সির লাজং। ঘনঘন আক্রমণে ইস্টবেঙ্গল ডিফেন্সে ত্রাহি ত্রাহি রব। ১০ মিনিটে হেড তেকাঠিতে রাখতে পারলেন না ডিকা। ২০ মিনিটে বিপিনের ভলিও লক্ষ্যচ্যূত হল। কিন্তু লালহলুদ ডিফেন্সের কাঁপুনি থামছে না।

এ সবরের মধ্যেই, খেলার গতির সম্পূর্ণ বিরুদ্ধে বক্সের মধ্যে একঝাঁক ডিফেন্ডারকে এড়িয়ে গোলে বল রাখলেন পেইন।

হাল ছাড়েনি লাল জার্সি। তারই ফলস্বরূপ দ্বিতীয়ার্ধে গোল পেয়ে গেলেন ডিকা। বারবার আক্রমণে ইস্টবেঙ্গল ডিফেন্সকে তছনছ করেও লাজং যে আর গোল পেল না, সে শুধু তাদের স্ট্রাইকারদেরই দুর্বলতার কারণে। ৮৩ মিনিটের মাথায়, রেহনেশকে একা পেয়েও রুপার্ট যে গোলটা মিস করলেন, সেই হতাশা তাঁকে তাড়া করে বেড়াবে অনেকদিন।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন