বরদলুই খেলতে গুয়াহাটিতে ইস্টবেঙ্গল, দু’মাস ঝাঁপ বন্ধ মোহনবাগানের

0

গুয়াহাটি পৌঁছে অনুশীলন শুরু করে দিল ইস্টবেঙ্গল। বৃহস্পতিবার বরদলুই ট্রফির প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের দল বঙ্গবী ক্লাবের মুখোমুখি হবে তারা। কলকাতা লিগে ঐতিহাসিক ‘হেপ্টা’ জয়ের পরও ফোকাসড লাল-হলুদ শিবির। আইএসএলের জন্য ইতিমধ্যেই একঝাঁক ফুটবলারকে বিভিন্ন ফ্রাঞ্চাইজির কাছে ছেড়ে দিয়েছে তারা। দেশে ফিরে গিয়েছেন সহকারী কোচ রিচার্ড ড্রাইডেনও। আসন্ন আইলিগকে পাখির চোখ করে বিদেশি আর জুনিয়রদের ম্যাচ ফিট রাখতে বরদলুই খেলতে গেছে ইস্টবেঙ্গল। অ্যাকাডেমির দায়িত্ব সামলানো রঞ্জন চৌধুরীকেই এই টুর্নামেন্টে দলের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। অ্যাকাডেমির বেশ কিছু শিক্ষানবিশও এই দলে সুযোগ পেয়েছেন। কলকাতা লিগ খেলা বিদেশিরা আদৌ আইলিগের দলে স্থান পাবেন কি না, তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। বরদলুইয়ে তাদের পারফর্মেন্সই আইলিগে দলে স্থান পাওয়ার মাপকাঠি হতে চলেছে।

নভেম্বরের শুরুতেই সোনি নোর্দির দেশ হাইতির ওয়েদসোনের যোগ দেওয়ার কথা ইস্টবেঙ্গলে। এই ফুটবলারকে দলে পেতে ঝাঁপাতে পারে মোহনবাগানও, এমন গুঞ্জন ময়দানে শোনা গেলেও, সেই ব্যাপারে জল ঢেলে দিয়েছেন সবুজ মেরুন কর্তারা। ওয়েদসোন সম্পর্কে মোহনবাগান অর্থসচিব দেবাশিস দত্ত বলেন, “ও সোনি নোর্দির মানের নয়”।

মোহনবাগান ইতিমধ্যেই হারুন আমিরিকে ছেড়ে দিয়েছে। কলকাতা লিগের শুরুতে ফর্মে থাকলেও, শেষ দিকের অফ ফর্ম, ড্যারেল ডাফিকেও প্রশ্নচিহ্নের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। তবে তাঁর সঙ্গে চুক্তি রয়েছে সামনের বছর মে মাস পর্যন্ত। স্কটিশ এই স্ট্রাইকারের ব্যাপারে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন সঞ্জয় সেন স্বয়ং। মোহনবাগানের একাধিক প্রথম সারির খেলোয়াড় কলকাতা লিগে খেলেননি। আসন্ন আইলিগের জন্য আইএসএলের পরেই সবুজ-মেরুন শিবিরে যোগ দেবেন তাঁরা। শুধুমাত্র কয়েকজন শিক্ষানবিশকে নিয়ে প্রতিযোগিতা তো দূর, অনুশীলনও করতে নারাজ মোহনবাগান কর্তারা। তাই আগামী দু’মাস ঝাঁপ বন্ধ থাকবে মোহন শিবিরের। নভেম্বরের তৃতীয় বা শেষ সপ্তাহে ফের অনুশীলন শুরু করবে তারা।

অন্যদিকে বিধায়ক-ফুটবলার দীপেন্দু বিশ্বাসকে মহমেডানের সহ সভাপতি হিসেবে নিযুক্ত করা হল। ক্লাবের ফুটবল সংক্রান্ত যাবতীয় সিদ্ধান্ত এবার থেকে কোচের সাথে আলোচনা করে নেবেন দীপেন্দু।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন