উইম্বলডন: বিদায় নিলেন ফেডেরার, সেমিফাইনালে জোকোভিচ

0
ফেডেরার, জোকোভিচ।
জয়ের পরে জোকোভিচ। ফেডেরারকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন হুবার্ট। ছবি WIMBLEDON 2021Twitter থেকে নেওয়া।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: উইম্বলডন টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে বিদায় নিলেন রজার ফেডেরার। কোয়ার্টার ফাইনালে তিনি পরাজিত হলেন পোল্যান্ডের হুবার্ট হুরকাজের কাছে। জয়ী হুবার্ট এই প্রথম কোনো বড়ো টেনিস টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে পৌঁছোলেন। সেমিফাইনালে হুবার্টকে খেলতে হবে হয় ইতালির মাত্তেও বেরেত্তিনি অথবা কানাডার ফেলিক্স অগার-আলিয়াসসাইমের বিরুদ্ধে।

ওদিকে শেষ চারে জায়গা করে নিলেন নোভাক জোকোভিচ। কোয়ার্টার ফাইনালে তিনি হারিয়ে দিলেন হাঙ্গেরির মার্টন ফুকসোভিক্সকে। সেমিফাইনালে তাঁর প্রতিদ্বন্দী হবেন হয় রাশিয়ার খাচানভ অথবা কানাডার ডেনিস শাপোভালভ।

তেমন লড়াই দিতে পারলেন না ফেডেরার

টেনিস জগতের কিংবদন্তি রজার ফেডেরার বুধবার সেন্টার কোর্টে স্ট্রেট সেটে হারলেন তাঁর চেয়ে ১৯ বছরের ছোটো হুবার্ট হুরকাজের কাছে। খেলার ফল ৬-৩, ৭-৬ (৭/৪), ৬-০। খেলার ফলই বলে দিচ্ছে, দ্বিতীয় সেটটি ছাড়া প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে তেমন লড়াই দিতে পারেননি ফেডেরার। তৃতীয় সেটটি তো একেবারেই একপেশে হয়েছে। ফেডেরার এই প্রথম উইম্বলডনে কোনো সেট ৬-০ ফলে হারলেন।

আট বারের উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন ফেডেরার এই নিয়ে এই চ্যাম্পিয়নশিপের ১১৯ ম্যাচের মধ্যে ১৪টা ম্যাচে হারলেন। ২০০২-এ মারিও আনচিকের কাছে প্রথম রাউন্ডে স্ট্রেট সেটে হারার পর ১৯ বছর পর আবার স্ট্রেট সেটে হারলেন ফেডেরার।     

Shyamsundar

তবে উইম্বলডনের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেই একটা ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন সুইস তারকা ফেডেরার। ১৯৬৮-তে টেনিসের ‘ওপেন এরা’ (Open Era) শুরু হওয়ার পর থেকে ফেডেরারই হলেন প্রথম খেলোয়াড় যিনি এত বয়সে এই টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠেন। আগামী মাসেই ফেডেরার ৪০ বছরে পড়বেন। ২০২০-তে এই টেনিস তারকার দু’টি হাঁটুতেই অস্ত্রোপচার হয়েছে।     

বিশ্ব টেনিস র‍্যাঙ্কিং-এ ১৮ নম্বর ২৪ বছরের হুবার্ট জয়ের পরে বলেন, “এখানে রজারের বিরুদ্ধে খেলাটাই তো সুপার স্পেশ্যাল ব্যাপার। স্বপ্ন সত্যি হল আজ।” এই উইম্বলডনের আগে হুবার্ট কোনো গ্র্যান্ড স্লাম টুর্নামেন্টে তৃতীয় রাউন্ডের বেশি উঠতে পারেননি।

হুবার্ট হলেন দ্বিতীয় পোলিশ খেলোয়াড় যিনি উইম্বলডনের সেমিফাইনালে উঠলেন। এর আগে ২০১৩-এ ইয়ার্জি ইয়ানোভিক্স উইম্বলডন সেমিফাইনালে উঠেছিলেন।        

দশ বার উইম্বলডন সেমিফাইনালে জোকোভিচ

বিশ্ব টেনিস র‍্যাঙ্কিং-এ শীর্ষ স্থানের অধিকারী জোকোভিচ স্ট্রেট সেটে হারিয়ে দিলেন ফুকসোভিক্সকে। খেলার ফল জোকোভিচের অনুকূলে ৬-৩, ৬-৪, ৬-৪। পাঁচ বার উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন জোকোভিচ এই নিয়ে দশ বার এই টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে উঠলেন। বড়ো টেনিস টুর্নামেন্টে এই নিয়ে ৪১ বার সেমিফাইনালে উঠলেন জোকোভিচ।

ফেডেরারের ২০টা গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের যে রেকর্ড রয়েছে, এ বারের উইম্বলডনে সেই রেকর্ড ছোঁয়ার সুযোগ রয়েছে জোকোভিচের সামনে। এ দিনের জয় নিয়ে ৩৪ বছরের জোকোভিচ তাঁর টেনিস-জীবনে ঘাসের কোর্টে ১০০টা ম্যাচে জয় পেলেন।

জয়ের পর জোকোভিচ বলেন, “খুব মজবুত পারফরম্যান্স। ভালোই শুরু করেছিলাম। প্রথম পাঁচটা গেমে খুব একটা ভুল কিছু করিনি।”

তিনি বলেন, “জয়ের জন্য দ্বিতীয় আর তৃতীয় সেটে একটা সার্ভ ব্রেক করার দরকার ছিল। তবে মার্টন খুব লড়াই করেছে, শেষ পর্যন্ত হাল ছাড়েনি। এর জন্য ওর অনেক কৃতিত্ব প্রাপ্য। এই টুর্নামেন্ট ওর ভালো গেল।”

গত মাসে ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতার পর জোকোভিচই টেনিসের ইতিহাসে তিন নম্বর তারকা যিনি এক বারের বেশি চারটি প্রধান টুর্নামেন্ট জিতেছেন। আর এ বারের উইম্বলডন যদি জোকোভিচ জিততে পারেন তা হলে ১৯৬৯-এর পরে প্রথম এবং টেনিসের ইতিহাসে তৃতীয় জন হবেন যিনি এক ক্যালেন্ডার বর্ষে চারটি প্রধান টুর্নামেন্ট জিতবেন।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন