super cup

ওয়েবডেস্ক: প্রস্তাবিত সুপার কাপ নিয়ে যাবতীয় জল্পনার অবসান করল এআইএফএফ। সোমবার দিল্লিতে ফেডারেশনের সদর দফতরে সহ-সভাপতি সুব্রত দত্তের নেতৃত্বে বৈঠকে বসে লিগ কমিটি। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কুশল দাস, সুনন্দ ধর, চিরাগ তন্নার মতো লিগ কমিটির সদস্যরা।

সভায় ঠিক হয়েছে মোট ১৬টা দলকে নিয়ে এবারের সুপার কাপ অনুষ্ঠিত হবে। আই-লিগ এবং আইএসএলের শীর্ষস্থানে থাকা ছ’টি করে দল, অর্থাৎ মোট বারোটি দল সরাসরি মূলপর্বে খেলার সুযোগ পাবে। অন্যদিকে দুটো লিগের শেষ চারটে করে দল, অর্থাৎ মোট আটটা দল নিয়ে হবে যোগ্যতা অর্জনকারী পর্ব। এখান থেকে চারটে দল মূলপর্বের যোগ্যতা অর্জন করতে পারবে।

১২ মার্চ শুরু হবে এই যোগ্যতা অর্জনকারী পর্ব। মূলপর্বের খেলাগুলি হবে ৩১ মার্চ থেকে ২২ এপ্রিলের মধ্যে। প্রাথমিক ভাবে ফেডারেশনের ইচ্ছে ছিল কলকাতায় এই টুর্নামেন্ট আয়োজনের, তবে কলকাতায় মাঠের সমস্যা থাকায় কোচি অথবা কটককে ভেবে রেখেছে ফেডারেশন। তবে পাল্লা ভারী কোচিরই। কিছুদিনের মধ্যেই সম্প্রচার সংস্থার সঙ্গে আলোচনায় বসবে ফেডারেশন, তারপরেই চূড়ান্ত সূচি প্রকাশ করা হবে।

এ দিকে সুপার কাপ খেলার রাস্তা পরিষ্কার হলেও, টুর্নামেন্টের নিয়ম নিয়ে এখনও কিছু প্রশ্ন তুলছে আই-লিগের ক্লাবগুলি। ক্লাবগুলির দাবি আই-লিগের মতো সুপার কাপের ছ্য বিদেশিকে খেলাতে দিতে হবে, তার মধ্যে দু’জনকে হতে হবে এশিয়ান কোটায়। সমস্যা এখানেই, কারণ আইএসএল দলগুলির জন্য এশিয়ান কোটার বিদেশি রাখা বাধ্যতামূলক নয়।

তবে সুপার কাপের ধরে দুই লিগ মিশিয়ে দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে গেল। যেখানে যোগ্যতা অর্জন করতে পারলে খেলতে দেখা যাবে মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল এবং এটিকেকে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন