কলকাতা: মোহনবাগানের নির্বাচনী লড়াই জমিয়ে দিলেন সচিব অঞ্জন মিত্র। মাত্র ৮ জন কর্মসমিতির সদস্যকে নিয়ে বৈঠক শেষ করে অঞ্জনবাবু জানিয়ে দিলেন ৪ জন নতুন সহ সভাপতির নাম। তাদের মধ্যে ২ জন রাজ্যের মন্ত্রী। এরা হলেন অরূপ রায় ও জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। এছাড়া সহ সভাপতি হয়ে এলেন অঞ্জনবাবুর পুরনো বিশ্বাসভাজন রাধেশ্যাম আগরওয়াল ও মুরারি ঘোষ। পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখার্জিরও সহ সভাপতি হওয়ার কথা ছিল। তবে তিনি শেষ মুহূর্তে পিছিয়ে যান।

এদিন অঞ্জনবাবু জানান, সাত থেকে দশ দিনের ক্লাবের হিসেব জমা দেওয়া হবে। তখনই ঘোষণা করা হবে বার্ষিক সাধারণ সভার তারিখ। এছাড়া তিন মাসের মধ্যে ক্লাবে নির্বাচন করারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন অঞ্জনবাবু। জানিয়েছেন সব খেলোয়াড়দের যাবতীয় বকেয়া ৩১ মের মধ্যে মিটিয়ে দেওয়া হবে। তার জন্য পাঁচ জনের কমিটিও গড়ে দিয়েছেন অঞ্জন মিত্র।

এদিনের বৈঠকে পদত্যাগী কর্মসমিতির সদস্যদের মধ্যে সৌমিক বোস, পার্থজিত দাস ও বিদেশ বোসের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হয়মি। তবে সৃঞ্জয় বসু, দেবাশিস দত্ত সহ বাকিদের পদত্যাগ গৃহীত হয়েছে।

সব মিলিয়ে বোঝাই যাচ্ছে টুটু-গোষ্ঠীকে উচ্ছেদ করতে সর্বশক্তি প্রয়োগ করেছেন অঞ্জন মিত্র। এ কাজে তাঁর সঙ্গে রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের একটি শক্তিশালী অংশ। যার জেরে অঞ্জনবাবুর পাশে দাঁড়িয়েছে গোটা হাওড়া লবি।

যদিও এদিন ক্লাব লনে বসে অঞ্জনবাবুর বিরুদ্ধে হুঙ্কার ছেড়েছেন পদত্যাগী কর্মসমিতির সদস্যরা। অঞ্জনের কাজে স্বচ্ছতার অভাবের অভিযোগও তুলেছেন তাঁরা।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here