bale-laliga

রেয়াল মাদ্রিদ – ২        লেগানেস – ১

ওয়েবডেস্ক: দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে লা লিগায় জয়ে ফিরল রেয়াল মাদ্রিদ। শনিবার ঘরের মাঠে তারা মুখোমুখি হয়েছিল লিগ টেবিলের নিচের দল লেগানেসের। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচকে মাথায় রেখে এদিন রোনাল্ডো,র‍্যামোসদের বিশ্রাম দিয়েছিলেন কোচ জিনেদিন জিদান। ঘরের মাঠে প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক শুরু করে রেয়াল। সৌজন্যে গ্যারেথ বেল। একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় তাঁর শট। অবশ্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি তাঁকে। ম্যাচের মাত্র সাত মিনিটে গোল করে রেয়ালকে এগিয়ে দেন তিনি। এগিয়ে গিয়ে ধীরে ধীরে মাঝমাঠে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করতে থাকে রেয়াল। তবে পিছিয়ে পড়েও নিজেদের সাধ্যমত প্রতি আক্রমণে আসার চেষ্টা চালায় লেগানেসও। সৌজন্যে তাদের খেলোয়াড় গুরেরো। বেশ কয়েকবার রেয়াল বক্সে বিপদজনক হয়ে ওঠেন তিনি। ব্যবধান বাড়ানোর চেষ্টা করে রেয়ালও। তবে প্রথমার্ধের শেষ দিকে লেগানেসের আম্রবাটের শট পোস্টে না লাগলে বিরতিতে সমতা ফিরিয়ে নিত তাঁরা। অবশ্য আক্রমণের চাপকে বজায় রেখে নির্ধারিত সময়ের শেষে মায়োরালের গোলে ব্যবধান বাড়িয়ে বিরতিতে যায় রেয়াল মাদ্রিদ।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই আক্রমণ প্রতি-আক্রমণে খেলা শুরু করে দু’দল। যত সময় যায় আক্রমণে গতি আনতে থাকে লস ব্ল্যাঙ্কসরা। পিছিয়ে থাকেনি লেগানেসও। সমতা ফেরানোর লক্ষ্যে এগিয়ে আসে তারাও। যার ফসল অবশেষে পেয়ে যান তারা। দলগত সঙ্ঘতিকে কাজে লাগিয়ে লেগানেসের হয়ে ব্যবধান কমান ডার্কো। গোল পেয়ে আক্রমণে ঝাঁজ বাড়াতে থাকে লেগানেস। ক্রমাগত বিপদজনক হয়ে ওঠেন গ্যাব্রিয়েল, আম্রবাটরা। আক্রমণে আরও স্বচ্ছন্দ রাখতে মাঝমাঠের অন্যতম ভরসা টনি ক্রুসকে মাঠে নামান রেয়াল কোচ জিনেদিন জিদান। তবে শেষমেশ অবশ্য ব্যবধান বাড়াতে পারেনি কোনো দলই। খেলা শেষে অবশ্য রেফারির সঙ্গে বাগ বিতণ্ডার কারনে লাল কার্ড দেখেন লেফানেস অধিনায়ক গ্যাব্রিয়েল। এই জয়ের ফলে দ্বিতীয় স্থানে থাকা দল আতলেতিকো মাদ্রিদের (৭২) সঙ্গে ব্যবধান কমিয়ে ফেলল রেয়াল মাদ্রিদ (৭১)।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here