elclassicofinal

ওয়েবডেস্ক: যত সময় যাচ্ছে ইউরোপের দলবদলের বাজারে উত্তেজনার পারদ রীতিমতো বেড়ে চলেছে। মরশুম শুরু হলে কে কাকে টেক্কা দেবে তা-তো সময়ই বলবে। কিন্তু তাঁর আগে অর্থাৎ মাঠের বাইরের লড়াইয়ে বিপক্ষকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়তে রাজি নয় বড়ো ক্লাবগুলি। মাঠেও যেমন দেখা যায়, বাইরের চিত্রটাও এক। আর সেই তালিকায় সবার প্রথমে ‘এল ক্লাসিকো’ অর্থাৎ রেয়াল মাদ্রিদ বনাম বার্সেলোনা।

মরশুম শুরু হওয়ার পর এল ক্লাসিকো উপভোগ করবেন না এমন মানুষ আছে বলে মনে হয় না। যদিও এবার রোনাল্ডোর অনুপস্থিতি কিছুটা হলেও উৎসাহে ভাটা ফেলবে তা আগেভাগেই বলা যায়। তবে কারও জন্য কোনো কিছু থেমে থাকে না। দেখতে দেখতেই নতুন তারকাদের আবির্ভাব হবে। তবে দলবদলের কথা যখন হচ্ছে তখন এটা প্রায় সবাইরা জানা যে, মাঠের বাইরেও এই দু’দলের সম্পর্ক সাপে-নেউলের চেয়ে কোনো অংশে কম নয়।

সেই সম্পর্কে আরও কিছুটা ঘি ধালার জন্য এবার শিরোনামে অ্যালেক্স টেলেস। চিনতে পারছেন না? স্বাভাবিক। কিন্তু বিশেষজ্ঞদের মতে আগামী দিনের তারকা হতে চলেছেন এই ব্রাজিলিয়ান। যার জন্য চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকে টেক্কা দিতে তৈরি রেয়াল-বার্সা। ২৫ বছর বয়সি এই লেফটব্যাক গত কয়েক মরশুম নজরকাড়া পারফরমেন্স করেছেন পর্তুগিজ ক্লাব এফসি পোর্তোর হয়ে। গত মরশুমে সব টুর্নামেন্ট মিলিয়ে ৪৫ ম্যাচে চার গোল রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। বিশেষজ্ঞদের মতে টেলেসের ক্রস দুর্দান্ত। সঙ্গে নিখুঁত পাসিং দক্ষতা। একইসঙ্গে লং বল ও সেটপিসেও সিদ্ধহস্ত। ফলে যে কোনো দলেরই বড়ো সম্পদ হওয়ার সব রশদ রয়েছে তাঁর খেলায়।

তবে রেয়াল এবং বার্সার এর পিছনে দৌড়ানোর কারণ দু’দলের দুই লেফটব্যাক মার্সেলো এবং জর্দি অ্যালবার বয়স বেড়ে যাওয়া। ফলে এখন থেকেই তারা উঠেপড়ে লেগেছে বদলির জন্য। যেখানে এই সুযোগ হাতছাড়া করতে তারা নারাজ। অবশ্য পোর্তো থেকে তাঁকে আনা খুবই সহজ এই দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর পক্ষে। কেনো না তাঁর রিলিজ ক্লজ মাত্র ৩.৬ কোটি পাউন্ড।

এখন দেখার শেষমেশ কার ভাগ্যে শিকে ছেঁড়ে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here