barca

বার্সেলোনা – ৫                               লিও – ১

(দু’লেগ মিলিয়ে মিলিয়ে ৫-১ ব্যবধানে জয়ী বার্সেলোনা)

ওয়েবডেস্ক: শেষ ষোলোর প্রথম পর্বে বাইরের মাঠে গোলশূন্য শেষ করেছিল বার্সেলোনা। ফলে ঘরের মাঠে লিওর বিরুদ্ধে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ যে ছিল প্রায় নকআউট। তবে  একক আধিপত্য রেখেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটে পৌঁছে গেলেন মেসিরা।

ম্যাচে পাঁচ গোল বার্সার। ঘরের মাঠে শুরু থেকেই চাপ তাদের। মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে হ্যাটট্রিক করে শিরোনামে ছিলেন রোনাল্ডো। তার ঠিক একদিন পর মাঠে নেমে গোল করলেন মেসিও। ম্যাচে জোড়া গোল করলেন তিনি। ১৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে তাঁর প্রথম গোলে খাতা খোলে বার্সা। তাঁর অপর গোলটি দ্বিতীয়ার্ধে। এ ছাড়াও, বার্সার হয়ে বাকি গোলগুলি যথাক্রমে ডেম্বেলে, পিকে এবং কুতিনহোর।

এদিনের অন্যতম হেভিওয়েট ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল জার্মান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনুখ এবং লিভারপুল। প্রথম লেগে এই ম্যাচটিও ছিল গোলশূন্য। বিশেষজ্ঞরা মনে করেছিলেন দ্বিতীয় লেগে ঘরের মাঠে কিছুটা অ্যাডভান্টেজ নিয়ে নামবে বায়ার্ন। কিন্তু পুরো ঘটনাই ঘটল উল্টো।

পজেশনাল ফুটবলে বায়ার্ন এগিয়ে থাকলেও, আক্রমনের দিক দিয়ে লিভারপুল ছিল এগিয়ে। যার ফল, সাদিও মানের জোড়া গোল এবং ভ্যানডাইকের গোলে পরবর্তী রাউন্ডে পৌঁছে গেল গতবারের ফাইনাইলিস্টরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here