ওয়েবডেস্ক: চলতি মরশুমে ছন্দে রয়েছে বার্সেলোনা। লা লিগার খেতাবি লড়াইয়ে শীর্ষে। পৌঁছে গিয়েছে কোপা ডেল রের ফাইনালেও। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালেও চলে গিয়েছেন মেসিরা। দলের তারকা ফুটবলাররা ছন্দে রয়েছেন। তবে এখন থেকেই নতুন মরশুমের জন্য দলকে তৈরি করতে মরিয়া বার্সা। আর সেখানেই ফুটবলারদের আসা এবং যাওয়া নিয়ে খবর রীতিমতো শিরোনামে।

যেমন ক্রোয়েশিয়ার বিশ্বকাপার ইভান রাকিতিচ। স্পেনে সংবাদ মাধ্যমে খবর অনুযায়ী আগামী মরশুমে বার্সেলোনা ছাড়তে চান রাকিতিচ। তাঁর নতুন গন্তব্য হতে পারে জুভেন্তাস। শেষ কয়েক বছরে বার্সা জার্সিতে অন্যতম সেরা ফুটবলার ছিলেন এই মিডিও। তবে তাঁর সঙ্গে নতুন কোনো চুক্তি করেনি বার্সা। যার জেরে কিছুটা অভিমানী তিনি। শোনা যাচ্ছে, ইতিমধ্যেই জুভেন্তাসের সঙ্গে মৌখিক চুক্তি সেরে ফেলেছেন।

rakitic
রাকিতিচ

তবে সম্প্রতি বার্সা প্রেসিডেন্ট জোশেপ মারিয়া বার্তেমিউ জানিয়েছেন, রাকিতিচ দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার। কোচের ওর ওপর অনেক আস্থা আছে।

অন্য দিকে আরেক ফুটবলার কুতিনহোকে নিয়ে রীতিমতো জর্জরিত বার্সা। ২০১৮ সালে লিভারপুল থেকে বড়ো অর্থে তাঁকে দলে নেয় বার্সা। শুরুটা ভালো করলেও, চোট আঘাতের কারণে তাঁকে তেমন ছন্দে পাওয়া যায়নি। তাঁর সঙ্গে অনেক ক্লাবেরই নাম জড়িয়েছে। যাঁদের মধ্যে অন্যতম ম্যানইউ। ব্রাজিলিয়ান কুতিনহো নিজেও ইচ্ছুক নতুন মরশুমে বার্সা ছেড়ে অন্য কোথায় খেলতে।

coutinho
কুতিনহো

অন্য দিকে ম্যানইউর সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টারে মুখোমুখি হবে বার্সা। ম্যানইউ-র তারকা ফুটবলার পল পোগবা। সেই পোগবাকে ২০১৫ সালে দলে নেওয়ার চেষ্টা করেছিল বার্সা। কিন্তু শেষমেশ তা হয়নি। ম্যানইউ-তে যোগ দেন ফরাসি বিশ্বকাপজয়ী। আগামীদিনে বার্সা পোগবার জন্য ঝাঁপায় কি না তা-তো সময়ই বলবে।

pogba-600
পোগবা

তবে এর পরিপ্রেক্ষিতে বার্সা প্রেসিডেন্ট জানান, “২০১৫-তে পোগবা যখন জুভেন্তাসে খেলছিল, তখন আমরা জানিয়েছিলান জুভেকে, কখনও যদি পোগবাকে বিক্রির কথা ওরা ভাবে তাহলে আমরা সেই বিষয়ে কথা বলতে আগ্রহী। যখন ওরা পোগবাকে বিক্রি করল তখন ওর দাম অনেক ছিল। সেই অর্থ আমরা দিতে পারেনি। ম্যানইউ-কে ও অনেক এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার পোগবা”।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here