eb-super

ওয়েবডেস্ক: মরশুম জুড়েই দলে ছিল বিতর্ক। সেই বিতর্ককে সঙ্গী করেই শুক্রবার সুপার কাপের ফাইনালে নামছে ইস্টবেঙ্গল। বিতর্ক এবং ইস্টবেঙ্গল এই মরশুমে একে অপরের সমার্থক। বিদেশি বাছাই থেকে শুরু করে হালফিলের কোচ-টিডির সম্পর্ক। যা নিয়ে চাপানউতোর এখনও লেগে আছে। দল ফাইনালে চলে গেলেও, কোচ খালিদ এবং টিডি সুভাষের একে অপরের বিরুদ্ধে দ্বন্দ্ব চলছে তো চলছেই। কিছুদিন আগেও সুভাষ বলেছিলেন, “আই লিগে দলের কোন পরিকল্পনা ছিল না। মাঠে কোচিং করলেই কেউ কোচ হয়ে যায় না”। শুধু তাই নয় বিদেশি খেলোয়াড় ডুডু-কে নিয়েও রীতিমতো জলঘোলা হয় দুজনের মধ্যে।

তবে ফাইনালের আগে সুভাষের উদ্দেশে উত্তরে চমকে দিলেন খালিদ। তিনি বলেন “উনি আমাদের সবদিক দিয়ে সাহায্য করে চলেছেন। ওনার পরামর্থেশ কে নিজেদের অনেক ভুল ত্রুটি ঠিক করে নিতে পেরেছি আমরা”। এ ছাড়াও ফাইনালে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী বেঙ্গালুরু এফসি এবং দলের অন্যতম প্রধান স্ট্রাইকার ডুডুর চোট সংক্রান্ত প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, “আমাদের মতো বেঙ্গালুরুও জয়ের জন্য মাঠে নামবে। ভারতের অন্যতম সেরা দল ওরা। আমরা শেষ পর্যন্ত লড়ে যাব। আশা করছি ম্যাচের আগে ডুডুকে আমরা পেয়ে যাব”।

অন্যদিকে বেঙ্গালুরু কোচ আলবার্তো রোকা জানান, “ইস্টবেঙ্গলের ইতিহাস, সাফল্য দেখার মতো। ওদের কাতসুমি, আমনা খুব বিপদজনক খেলোয়াড়। ম্যাচ ৫০-৫০। নিজেদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করবো আমরা”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here