ফারদিনের জোড়া গোল, রাজস্থানকে হারিয়ে সন্তোষের সেমিফাইনালে বাংলা

0
জয়ের পরে উচ্ছ্বাস। ছবি twitter থেকে নেওয়া।

বাংলা ৩ (ফারদিন ২, সুজিত) রাজস্থান ০

মালাপ্পুরম (কেরল): ফারদিন আলি মোল্লার জোড়া গোলের সুবাদে সন্তোষ ট্রফির সেমিফাইনালে চলে গেল বাংলা। রবিবার এখানকার কোট্টাপাড়ি স্টেডিয়ামে আয়োজিত গ্রুপ লিগের ম্যাচে রাজস্থানকে ৩-০ গোলে হারিয়ে বাংলা শেষ চারে জায়গা করে নিল।

এই গ্রুপ থেকে সেমিফাইনালে যেতে হলে সন্তোষ ট্রফিতে ৩২ বারের চ্যাম্পিয়ন বাংলাকে এ দিনের ম্যাচ জিততে হত। কিন্তু ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্য অবস্থায় শেষ হয়। বাংলা গোল করার বেশ কয়েকটি সুযোগ হাতছাড়া করে।

বাংলার ৩ গোল

তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই বাংলা দাপট দেখাতে শুরু করে। ৪৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে বাংলা গোল পায়। বক্সের মধ্যে দিলীপ ওরাওঁকে ফাউল করেন রাজস্থানের ডিফেন্ডার লক্ষ্য গরশা। ওরাওঁ যখন রাজস্থানের গোল লক্ষ্য করে শট নিতে যাচ্ছিলেন, ঠিক সেই সময় গরশা ফেলে দেন তাঁকে। রেফারি এম সুগন্দর বাংলাকে পেনাল্টি দিতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করেননি। পেনাল্টি থেকে গোল করেন ফারদিন।

৫৯ মিনিটের মাথায় দলের এবং নিজের দ্বিতীয় গোল করেন ফারদিন। এই গোলের কিছুটা কৃতিত্ব প্রাপ্য পরিবর্ত খেলোয়াড় সুপ্রিয় পণ্ডিতের। দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে নেমে সুপ্রিয় বারবার ডান দিক থেকে উঠে আসছিলেন। এ ভাবেই আক্রমণে গিয়ে এক সময়ে বক্সের মধ্যে থেকে শট নেন তিনি। সেই বল রাজস্থানের গোলরক্ষক বাঁচান। কিন্তু ফিরতি বল চলে আসে ফারদিনের পায়ে। সেই বল জালে জড়িয়ে দিতে কোনো ভুল করেননি ফারদিন।

এই ম্যাচে অভিষেক হওয়া সুজিত সিংহ বেশ কয়েকটি সুযোগ পেয়েছিলেন। শেষ পর্যন্ত ম্যাচের ৮০ মিনিটের মাথায় তিনি সফল হন। নিজের প্রথম গোল ও দলের হয়ে তৃতীয় গোল করে সুজিত বাংলার সেমিফাইনালে যাওয়া সুনিশ্চিত করেন।

গ্রুপে দ্বিতীয় বাংলা

এ দিনের জয়ের পর ৪ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট সংগ্রহ করে গ্রুপে দ্বিতীয় হয়ে গ্রুপের খেলা শেষ করল বাংলা। ১০ পয়েন্ট পেয়ে গ্রুপ শীর্ষে রয়েছে কেরল।

এ দিনের গুরুত্বপূর্ণ জয়ে স্বভাবতই খুশি বাংলার প্রধান কোচ রঞ্জন ভট্টাচার্য। ম্যাচের পর তিনি বলেন, শেষ চারে যত কঠিন প্রতিপক্ষ আসুক, তাদের বিরুদ্ধে জয় ছিনিয়ে নিতে বাংলা তাদের সেরা খেলা খেলবে। এ দিন ম্যাচের সেরা হন ফারদিন আলি মোল্লা।

আরও পড়তে পারেন

কঠিন অধ্যাবসায়ের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত সচিন তেন্ডুলকর

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন