জয়ের পরে বেঙ্গালুরুর উল্লাস। ছবি সৌজন্যে ISL Twitter

বেঙ্গালুরু ৪ (সিলভা, শেরীফ আত্মঘাতী, রানে, আইবারা) নর্থইস্ট ইউনাইটেড ২ (ব্রাউন, কৌরয়ের)

ব্যাম্বোলিম (গোয়া): সুনীল ছেত্রীর বেঙ্গালুরু এফসি-র এ বারের আইএসএল অভিযান ভালো ভাবেই শুরু হল। গত বারের সেমিফাইনালিস্ট নর্থইস্ট ইউনাইটেড এফসিকে তারা হারাল ৪-২ গোলে।

২০১৭-১৮ আইএসএল-এর রানার্স আপ বেঙ্গালুরু পরের বছরেই চ্যাম্পিয়ন হয়। তার পরের বছর তারা সেমিফাইনালে উঠেছিল। ফলে আইএসএল ২০২০-২১-এ তাদের ঘিরে সমর্থকদের অনেক আশা ছিল। কিন্তু সেই আশায় জল ঢেলে গত বার আইএসএল-এ ১১টি দলের মধ্যে সপ্তম স্থান পেয়েছিল তারা।

কিন্তু এ বছর বেঙ্গালুরু আইএসএল অভিযান যে ভাবে শুরু করল তাতে তাদের ঘিরে ফুটবলবোদ্ধাদের আশা জাগলে তাতে বিস্ময়ের কিছু থাকবে না।

প্রথমার্ধেই ৫ গোল

শনিবার গোয়ার ব্যাম্বোলিমের অ্যাথলেটিক স্টেডিয়ামে আয়োজিত এই ম্যাচের সব চেয়ে উত্তেজনাময় সময় কেটেছে প্রথমার্ধে ১৪ মিনিট থেকে ২৬ মিনিটের মধ্যে। মাত্র ১২ মিনিটে ৪টি গোল।

১৪ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় বেঙ্গালুরু। উদন্ত সিংয়ের পাস থেকে গোল করেন ক্লাইটন সিলভা। ৩ মিনিট পরেই গোল শোধ। নর্থইস্টের হয়ে গোল করেন দেশর্ন ব্রাউন। ৫ মিনিট পরেই আবার গোল। গোল বাঁচাতে গিয়ে আত্মঘাতী গোল করে বসেন নর্থইস্টের মাশুর শেরীফ। ফলে বেঙ্গালুরু এগিয়ে যায় ২-১ গোলে।

নর্থইস্ট নিজেদের ভুল শুধরে নেয় ম্যাচের ২৬ মিনিটেই। সুহেরের থেকে ক্রস পেয়ে গোল করেন মাথিয়াস কৌরয়ের। খেলার ফল ২-২।

খেলা সমানে সমানে চলতে থাকে। দু’ দলই গোল করার সুযোগ সৃষ্টি করেও কাজে লাগাতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত ৪২ মিনিটে জয়েশ রানের বুলেট শটে এগিয়ে যায় বেঙ্গালুরু। প্রথমার্ধে ৩-২ গোলে এগিয়ে থাকে বেঙ্গালুরু।

জয়ের ফয়সালা ৮১ মিনিটে

দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কয়েক বার নর্থইস্টের ত্রাতার ভূমিকায় নামতে হয় অধিনায়ক গোলকিপার শুভাশিস রায়কে। ৪৮ মিনিটে সুনীল ছেত্রীর শট বাঁচান শুভাশিস। ৭৩ মিনিটে আবার দুর্দান্ত সেভ করেন শুভাশিস। এ বার ক্লাইটন সিলভার শট বাঁচান তিনি।

অবশেষে ৮১ মিনিটে নর্থইস্টের কফিনে শেষ পেরেক পুঁতে দেয় বেঙ্গালুরু। প্রিন্স আইবারা অনেকটা দৌড়ে, নর্থইস্টের রক্ষণ ভাগের খেলোয়াড়দের ড্রিবল করে কাটিয়ে যে শট নেন তা ধরতে পারেননি শুভাশিস।

শেষ পর্যন্ত গত বারের লিগের তৃতীয় স্থানাধিকারী দল সপ্তম স্থানাধিকারীর কাছে ৪-২ গোলে হেরে যায়।

আরও পড়তে পারেন

অভিষেক ম্যাচে দুরন্ত বুমৌস, কেরলকে দুরমুশ করে এটিকে মোহনবাগানের আইএসএল অভিযান শুরু

ইস্টবেঙ্গলের কাছে ৫ গোল হজম, ১৯৭৫-এর সেই দিন ভুলতে পারে না মোহনবাগান

আইএসএল-এ দু’টি ম্যাচেই মোহনবাগান জিতলেও ডার্বির ইতিহাসে জয়ের পাল্লা ভারী ইস্টবেঙ্গলেরই

মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল ডার্বি ম্যাচের ইতিহাসে কলঙ্কময় সেই দিন, ঝরে গেল ১৬টি তাজা প্রাণ

এক জন বাদে রয় কৃষ্ণরা আছেন এটিকে মোহনবাগানে, এ বার আরও নতুন দুই বিদেশি

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন