সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে বিস্ফোরক মন্তব্যের রেশ ধরে সংবাদ শিরোনামে পর্তুগালের মহাতারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (Cristiano Ronaldo)। এরই মধ্যে সোমবার (২১ নভেম্বর) এক নতুন ইতিহাস গড়ে ফেললেন তিনি।

নতুন ইতিহাস রোনাল্ডোর

এ দিন ইনস্টাগ্রামে (Instagram) তাঁর ফলোয়ার সংখ্যা ছুঁয়ে ফেলল ৫০ কোটির (৫০০ মিলিয়ন) মাইলফলক। শুধু ফুটবলার নন, এ দিক থেকে তিনিই বিশ্বের প্রথম কোনো ক্রীড়াবিদ, এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে যাঁর অনুসরণকারীর সংখ্যা নতুন উচ্চতায় পৌঁছে গেল।

ইনস্টাগ্রামে সবচেয়ে বেশি উপার্জনকারী ক্রীড়াবিদদের অন্যতম রোনাল্ডো। ইনস্টাগ্রাম ছাড়াও অন্য সব সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মেও তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয়। টুইটারে তাঁর ফলোয়ার সাড়ে ১০ কোটিরও বেশি। আবার ফেসবুকে তাঁকে অনুসরণ করেন প্রায় সাড়ে ১৫ কোটি ফুটবল অনুরাগী। সংখ্যাতত্ত্বের বিচারে তাঁর পরেই রয়েছেন লিওনেল মেসি, বিরাট কোহলি, নেইমার, লেব্রন জেমস-সহ অন্য ক্রীড়াবিদরা। তবে এ বার কার্যত ফলোয়ার সংখ্যা নিয়ে গর্ব করার মতো জায়গায় পৌঁছে গেলেন সিআর সেভেন।

বিস্ফোরক রোনাল্ডো, এবং বিতর্ক

কয়েকদিন আগে একটি টিভি চ্যানেলকে সাক্ষাৎকার দেন রোনাল্ডো। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ক্লাব (Manchester United) ও দলের হেড কোচ এরিক টেন হ্যাগের (Erik ten Hag) বিরুদ্ধে তাঁর সেই বিস্ফোরক সাক্ষাৎকার সম্প্রচার হতেই বিতর্কের ঝড় বেড়েই চলেছে।

ওই সাক্ষাৎকারে রোনাল্ডো বলেন, দল থেকে তাঁকে জোর করে বের করার চেষ্টা হয়েছিল। যাকে তিনি “বিশ্বাসঘাতকতা”র সমান বলে মনে করেন। খোলাখুলি বলেন, “শুধু দলের ম্যানেজারই নন, ক্লাবের শীর্ষকর্তারাও আমাকে জোর করে সরিয়ে দিতে চাইছেন। দুই থেকে তিনজন এই চক্রান্তের পিছনে রয়েছেন। এখন তো মনে হচ্ছে আমি বিশ্বাসঘাতকতার শিকার হয়েছি”। একই সঙ্গে জানিয়ে দেন, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ম্যানেজার এরিক টেন হ্যাগের প্রতি তাঁর “কোনো সম্মান নেই”, কারণ তিনি “আমার প্রতি সম্মান দেখান না”।

বলে রাখা ভালো, ২০২১ সালের আগস্টে পুনরায় ইউনাইটেডে যোগ দেন। তবে প্রিয় ক্লাবে তাঁর দ্বিতীয় ইনিংস মোটেও সুখের হয়নি। ২৪টি গোল করে মরশুমের শীর্ষ গোলদাতা হিসেবেই শেষ করেছিলেন। তার পরেও যে ধরনের ঘটনার মুখোমুখি হতে হয়, তাতে বীতশ্রদ্ধ রোনাল্ডো। তাঁর কথায়, “আমি তাঁকে সম্মান করি না কারণ তিনি আমার প্রতি শ্রদ্ধা দেখান না। আপনি কাউকে সম্মান না করলে নিজেও সম্মান পেতে পারেন না”।

তবে রোনাল্ডোর এহেন মন্তব্য ঘিরে বিতর্ক বেড়েছে চলমান ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২(FIFA World Cup Qatar 2022)-এর আবহে। সমালোচকরা বলছেন, বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে এই স্পর্শকাতর ইস্যুতে এখনই পর্তুগিজ মহাতারকার মুখ খোলা ঠিক হয়নি।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন