ucl

ওয়েবডেস্ক: চলতি সপ্তাহে ফের শুরু হচ্ছে চ্যাম্পিয়ন লিগ। অর্থাৎ শেষ ষোলোর লড়াই বা নকআউট পর্ব। ফের ইউরোপ সেরার লড়াইয়ে নামবে ইউরোপের হেভিওয়েট ক্লাবগুলি।

এই মুহূর্তে বর্তমানে ক্লাবগুলির অবস্থা কেমন। কে কোথায় দাঁড়িয়ে পাওয়ার র‍্যাঙ্কিং অনুযায়ী। সব টুর্নামেন্ট মিলিয়ে শেষ দশটি ম্যাচ মিলিয়ে এই র‍্যাঙ্কিং

১। ম্যানচেষ্টার ইউনাইটেড

দু’মাস আগে যখন শেষ ষোলোর ড্র হয়েছিল তখন অনেকেই হয়তো মনে করেছিলেন, পরবর্তী রাউন্ড থেকেই ছিটকে যাবে ম্যানইউ। তবে বর্তমানে চিত্রটি সম্পূর্ণ আলাদা। নতুন কোচ ওলে গানারের তত্ত্বাবধানে প্রতি ম্যাচেই নিজেদের ছন্দ দেখাচ্ছেন পোগবারা। শেষ ষোলোয় তাদের সামনে ফরাসি চ্যাম্পিয়ন প্যারিস সাঁ জা। তবে চোটের কারণে দলে নেই নেইমার। ফলে প্রথম লেগে ঘরের মাঠে নিজেদের সেরাটা দিতে চায় ম্যানইউ।

২। ম্যানচেষ্টার সিটি

পেপ গুয়ারদিওলার তত্ত্বাবধানে রীতিমতো ছন্দে রয়েছে ম্যান সিটি। তারা অন্যতম ফেভারিট হলেও, গত কয়েকবছর নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে ব্যর্থ তারা। বর্তমানে প্রতিটা টুর্নামেন্টেই নিজেদের সেরাটা দিচ্ছেন সিটি ফুটবলাররা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তাদের সামনে শালকে। বিশেষজ্ঞদের মতে তাদেরকে হারনো খুব একটা শক্ত হবে না সিটির পক্ষে।

৩। বায়ার্ন মিউনিখ

বর্তমানে ঘরোয়া লিগে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বায়ার্ন। তবে চ্যাম্পিয়ন লিগের ইতিহাসে অন্যতম সফল দল তারা। তাদের সামনে আরেক ফেভারিট লিভারপুল। তবে তারকা স্ট্রাইকার রবার্ট লেওয়ানডোস্কির মতো তারকার উপস্থিতিতে বায়ার্ন নিজেদের সেরাটা দিতে তৈরি।

৪। রেয়াল মাদ্রিদ

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে সফলতম দল রেয়াল মাদ্রিদ। গত তিনবারের চ্যাম্পিয়ন তারা। লিগে এই মুহূর্তে তারা দ্বিতীয়। ফর্মে কিছুটা ঘাটতি থাকলেও, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তারা সবসময় ফেভারিট। তাদের সামনে এবার আয়াখস।

৫। প্যারিস সাঁ জা

শেষ ষোলোয় তাদের সামনে ম্যানইউ। ফরাসি লিগে এই মুহূর্তে শীর্ষে থাকলেও, দলে রীতিমতো চোট আঘাত। চোটের জন্য দল থেজে বাদ পরেছেন নেইমার। অন্যদিকে লিগের ম্যাচে চোট পেয়েছেন আরেক তারকা কাভানিও। শেষমেশ তিনিও চ্যাম্পিয়ন লিগের প্রথম লেগের ম্যাচে দলে নেই।

৬। জুভেন্তাস

চলতি মরশুমে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে দলে নিয়েছে জুভেন্তাস। ফলে চ্যাম্পিয়ন লিগ জয়ের তারা অন্যতম দাবিদার তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এই মুহূর্তে ঘরোয়া লিগে রীতিমতো দাপটে রয়েছে তারা। ২০১৪-১৫ মরশুমে বার্সেলোনা এবং ২০১৬-১৭ মরশুমে ফাইনালে রেয়ালের কাছে হার। ফলে রোনাল্ডোকে সামনে রেখে চ্যাম্পিয়ন হতে মরিয়া তারা। তাদের সামনে আতলেতিকো মাদ্রিদ।

৭। বরুশিয়া ডর্টমুন্ড

এই মুহূর্তে জার্মান লিগে শীর্ষে রয়েছে ডর্টমুন্ড। এই মুহূর্তে রীতিমতো ছন্দে তারা। তাদের সামনে ইপিএলের টটেনহ্যাম। বিশেষজ্ঞদের মতে চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অন্যতম জমজমাট ম্যাচ হতে পারে এটি। ডর্টমুন্ড জার্সিতে রীতিমতো ছন্দে রয়েছেন পাখো আলখাসার এবং জ্যাডোন স্যাঞ্চো।

৮। টটেনহ্যাম

মরসুমের শুরুটা ভালোই করেছিল টটেনহ্যাম। তবে এই মুহূর্তে লিগের লড়াইয়ে থাকলেও, পরপর দুটি কাপ টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেছে তারা। অন্যদিকে দলের তারকা ফুটবলার হ্যারি কেন চোটের জন্য মাত্তের বাইরে। ফলে চ্যাম্পিয়ন লিগের ম্যাচে নামার আগে কিছুটা চাপে আছেন কোচ পচেটিনো। সেই নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। তাদের সামনে ডর্টমুন্ড।

৯। পোর্তো

চলতি মরশুমে গ্রুপ পর্যায়ে অন্যতম চমকপ্রদ ফুটবল খেলেছে পর্তুগালে পোর্তো। ঘরোয়া লিগে এই মুহূর্তে তারা শীর্ষে। শেষ কয়েকটি ম্যাচে কিছুটা খেই হারিয়েছে তারা। তবে ইউরোপিয়ান সার্কিটে নিজেদের সেরাটা দিতে ২০০৪-য়ের চ্যাম্পিয়নরা। তাদের সামনে আবার এএস রোমা। যারা গতবছরের সেমিফাইনালিস্ট।

১০। আয়াখস

চ্যাম্পিয়ন লিগের ইতিহাসে অন্যতম সফল দল তারা। বর্তমানে ইউরোপের অন্যতম ইয়াং ব্রিগেডও। সব টুর্নামেন্ট মিলিয়ে তারা ছন্দে থাকলেও, তাদের সামনে এবার গত তিনবারের চ্যাম্পিয়ন রেয়াল মাদ্রিদ। তবে তরুণ ব্রিগেডকে নিয়ে নিজেদের সেরাটা দিতে তৈরি তারা।

১১। লিভারপুল

গত বছর ফাইনালেও গিয়েও, শেষমেশ রেয়ালের কাছে হার। ফলে চলতি বছর ফাইনালে উঠে চ্যাম্পিয়ন হতে মরিয়া সালাহ, মানেরা। এই মুহূর্তে ঘরোয়া লিগে কিছুটা পয়েন্ট নষ্ট করে লিগে দ্বিতীয় স্থানে তারা। তাদের সামনে এবার জার্মান হেভিওয়েট বায়ার্ন মিউনিখ।

১২। রোমা

গত বছর প্রথম লেগে পিছিয়ে থেকেও বার্সাকে হারিয়ে রীতিমতো চমক দিয়েছিলে রোমা। এই মুহূর্তে ঠিক ছন্দবদ্ধ দেখা যাচ্ছে না তাঁদের। তবে চ্যাম্পিয়ন লিগে নিজেদের সেরাটা দিতে তৈরি তারা। তাদের সামনে এবার পোর্তো।

১৩। লিওঁন

বর্তমানে তেমন ছন্দে না থাকলেও, চলতি চ্যাম্পিয়ন লিগে ম্যানসিটিকে ঘরের মাঠে হারিয়েছে তারা। লিগের লড়াইয়ে তাদের কাছেই প্রথম হেরেছে প্যারিস সাঁ জা। তাদের সামনে চ্যাম্পিয়ন লিগে এবার বার্সেলোনা।

১৪। বার্সেলোনা

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের অন্যতম মেসিদের দল। তবে বর্তমানে কিছুটা ধারাবাহিকতার অভাব রয়েছে তাদের। লিগের লড়াইয়ে পরপর আটকে গেছে তারা। তাদের সামনে এবার ফ্রান্সের লিওঁন।

১৫ আতলেতিকো মাদ্রিদ

লালিগার লড়াইয়ে এই মুহূর্তে কিছুটা পিছিয়ে পরেছে তারা। গত সপ্তাহে মাদ্রিদ ডার্বিতে ঘরের মাঠে হার। ফলে দ্বিতীয় থেকে তৃতীয় স্থানে নেমে গিয়েছে তারা। তাদের সামনে এবার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর জুভেন্তাস।

১৬। শালকে

এই মুহূর্তে ছন্দে নেই তারা। ঘরোয়া লিগ তথা জার্মান লিগে এই মুহূর্তে চতুর্দশ স্থানে শালকে। তাদের সামনে ইপিএল চ্যাম্পিয়ন ম্যান সিটি। নকআউট পরবে নিজেদের সেরাটা দিতে চান ডমিনিকো টেডেস্কোর ছেলেরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here