dika

ইন্ডিয়ান অ্যারোজ – ০                                  মোহনবাগান – ২ (ডিকা)

ওয়েবডেস্ক: অবশেষে চলতি আইলিগে প্রথম জয় পেল মোহনবাগান। শনিবার অ্যাওয়ে ম্যাচে ডিকার জোড়া গোলে তাঁরা হারাল ইন্ডিয়ান অ্যারোজকে। প্রথম দু’ম্যাচে পয়েন্ট নষ্ট, ফলে ম্যাচের আগে মানসিক যে একটা চাপ ছিল, সেই নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। ফুটবলে গোলই শেষ কথা। আর দলের স্ট্রাইকাররা যদি গোল না পান তা হলে আত্মবিশ্বাসের অভাব স্পষ্টই লক্ষ্য করা যায়। এ দিনও শুরুতে যা প্রকাশ পেল।

ম্যাচের শুরুতেই গোল পেয়ে যেত মোহনবাগান। ফাঁকা গোলে বল ঢোকানোর সহজ সুযোগ পেয়ে গিয়েছিলেন হেনরি। কিন্তু তাঁর শট বাইরে। প্রথমার্ধে তিনি একাই যা সুযোগ পেয়েছিলেন তাতে হ্যাটট্রিক সেরে ফেলতে পারতেন। সুযোগ পেয়েছিলেন ডিকাও কিন্তু তাঁর হেডার বিপক্ষ গোলকিপারের হাতে। তবে ক্রমশ চাপ রাখার ফল অবশেষে পেয়ে যায় গঙ্গাপারের ক্লাবটি। ২৯ মিনিটে হেনরির ক্রসে লো হেডারে মোহনবাগানকে এগিয়ে দেন ডিকা। পিছিয়ে পড়ে কিছুটা প্রতিআক্রমণে ফেরার চেষ্টা চালায় তরুণ দলটি। সুযোগ পেয়েছিলেন অনিকেত কিন্তু তাঁর শট বাইরে। কিন্তু বিরতিতে যাওয়ার কিছুক্ষণ আগেই বক্সে বিপক্ষ খেলোয়াড় হ্যান্ডবল করায় পেনাল্টি পায় মোহনবাগান। ড্রেসিংরুমে যাওয়ার আগে দলের হয়ে ব্যবধান বাড়ান গত দু’বারের আইলিগের শীর্ষ গোলদাতা সেই ডিকা।

বিরতির পর শুরুতে কিছুটা খেলায় ফেরার চেষ্টা চালায় অ্যারোজ। এই অর্ধে পজেশনাল ফুটবলে বিপক্ষকে মাত করে দেওয়ার চেষ্টা চালান শঙ্করলালের ছেলেরা। হ্যাটট্রিক সেরেই ফেলতেন ডিকা। কিন্তু সুযোগ কার্যকর করতে ব্যর্থ হন। সুযোগ পেয়েছিলেন ডিফেন্ডার কিংসলেও, কিন্তু ব্যবধান বাড়াতে পারেননি তিনিও। গত ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও পরিবর্ত হিসাবে নামেন মোহনতারকা সনি নর্ডি। ম্যাচে ব্যবধান বাড়ানোর লক্ষ্যে শেষপর্যন্ত আক্রমণ চালালেও ব্যবধান বাড়াতে পারেনি মোহনবাগান। এই জয়ের ফলে আপাতত লিগ টেবিলে তৃতীয় স্থানে উঠে এলো সবুজ-মেরুন ব্রিগেড।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here