dudu-amna

ওয়েবডেস্ক: বিতর্ক এবং ইস্টবেঙ্গল এই মরশুমে একে অপরের সমর্থক। সম্প্রতি সেই তালিকায় নথিভুক্ত হয়েছেন আইলিগে দলের সর্বোচ্চ গোলদাতা ডুডু ওমাগবেমি। সুপার কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে আইজলের বিরুদ্ধে তাঁকে যখন পরিবর্তন করা হয়, তখন জার্সি ছিঁড়ে রীতিমতো খবরের শিরোনামে আসেন এই বিদেশি। তাঁর অভিযোগ, সমর্থকরা তাঁকে নাকি ‘মাঙ্কি’ বলে অসম্মান করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা সেটা না মানলেও ডুডুর রাগ তাতে কমেনি। বুধবার অনুশীলনে আসেননি। শোনা গেছিল সেমিফাইনালে ৰেলতে চাইছেন না তিনি। বৃহস্পতিবার অবশ্য অনুশীলনে যোগ দিয়েই সমর্থকদের একহাত নিলেন তিনি। তাঁর বক্তব্য, “সমর্থকরা ক্লাবকে মা মনে করে। কিন্তু কিছু হলে আগেই খেলোয়াড়দের দিকে আঙুল তোলা হয়। এটা ঠিক নয়। আমি পেশাদার ফুটবলার। দলের সঙ্গে এখনও চুক্তি রয়েছে। কেবলমাত্র সেজন্যই সেমিফাইনালে খেলব”।

এক বিদেশি যখন সমর্থকদের দিকে তোপ দাগছেন, অন্যজন তখন আবেগে আপ্লুত। হ্যাঁ ঠিকই ধরেছেন, ওপরজন আর কেউ না, এই মরশুমের সবথেকে ধারাবাহিক খেলোয়াড় আল আমনা। শোনা যাচ্ছিল এবার নাকি তিনি দল ছাড়তে চলেছেন। মোহনবাগান, এটিকে-র অফার তাঁকে ভাবাচ্ছিল। তবে যা খবর, শেষমেশ তিনি আরও একটা মরশুম লালহলুদ জার্সি পরেই খেলতে চলেছেন। টাকার অঙ্ক অবশ্যই বাড়ছে। খালিদ আছেন, তাই দলে থেকে যেতে চান তিনি। আইজলের হয়ে এই জুটি আইলিগ জিতলেও, প্রথম মরশুমে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে সেটা সম্ভব হয়নি। তাই আরও একটা মরশুম ইস্টবেঙ্গল জার্সিতে নিজেদের সেরাটা দিতে চান। তবে এই নিয়ে এখনই কোনো মন্তব্য করেননি সিরিয়ান। ‘ইস্টবেঙ্গলে থাকছেন কিনা’-সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে একগাল হেসেছেন আর বলেছেন “ইনশাল্লাহ”।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন