quessebfinal

ওয়েবডেস্ক: আইএসআল বনাম আইলিগ দ্বৈরথ কবে শেষ হবে তা এখনও পরিস্কার নয়। তবে একটাই লিগ যেন হয়। এটাই আর্জি দলগুলির। কলকাতার বড়ো দলগুলি নতুন মরশুমে কোথায় খেলবে তা এখনও জোর গলায় বলতে পারবে না কট্টর কোনো সমর্থকও। কিন্তু বিনিয়োগকারী হিসেবে কোয়েসকে পাওয়ার পর ইস্টবেঙ্গল আর্থিক দিক দিয়ে এখন অনেকটাই গতিশীল। নতুন শেয়ার হোল্ডাররা রীতিমতো বদ্ধপরিকর আইএসএলে দলকে খেলতে দেখতে।

আগামী ২০ জুলাই আইএসএল বিড ফের খুলতে চলেছে। আই লিগের অন্য কোনো দল সেই বিডে নিজেদের অন্তর্ভুক্ত করবে কিনা এখনও স্পষ্ট নয়। কিন্তু ইস্টবেঙ্গলের নতুন মালিক গোষ্ঠী একটা শেষ চেষ্টা করতে তৈরি। অবশ্য এই বছর অবধি “ওয়ান সিটি ওয়ান টিম” নিয়ম চালু রয়েছে। কিন্তু তাতেও কোনো ক্ষতি নেই। শোনা যাচ্ছে, ইতিমধ্যেই শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়াম পরিদর্শন করেছেন আইএমজিআর কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি, মাঠ ঠিকই রয়েছে, শুধু বাকেট সিট এবং ফ্লাডলাইটে কিছু উন্নতি করতে হবে।

কোয়েস কর্তাদের সিদ্ধান্ত, আইএসএল খেলার সুযোগ পেলে তাঁরা শিলিগুড়ির স্টেডিয়ামের প্রয়োজনীয় সংস্কার করে দেবেন। কারণ শিলিগুড়ির ক্লাব হিসেবেই আইএসএল খেলতে হবে লালহলুদকে।

আগামীকাল মুম্বই যাচ্ছেন ইস্টবেঙ্গলের শীর্ষ কর্তা দেবব্রত সরকার। ২০ জুলাই আইএসএল-এর বিড হওয়ার আগেই আইএমজিআর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ইস্টবেঙ্গলের আইএসএলে যোগদান নিশ্চিত করে ফেলতে চাইছেন তিনি।

আরও ফুটবলের খবর : ১৫ জন ফুটবলার যারা ২০২২ বিশ্বকাপে নজর কাড়তে চলেছেন

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here