দিশাহীন লাজং ডিফেন্সকে তছনছ করে ঘুরে দাঁড়াল লালহলুদ

0

ইস্টবেঙ্গল-৫(আমনা, এদু, রালতে ২, কাতসুমি-পেনাল্টি) লাজং-১(স্যামুয়েল)

কলকাতা: ডার্বির ধ্বংসস্তুপ থেকে উঠে দাঁড়াতে দলে পাঁচটি পরিবর্তন করেছিলেন খালিদ জামিল। আই লিগের প্রথম দুই ম্যাচে জয় পাওয়া শিলং লাজং-কে ৫ গোল দিল তাঁর দল। প্রথম থেকেই আক্রমণের ঝড় তুলেছিলেন আমনা-কাতসুমিরা। সেই ঝড় ঠেকানোর ওষুধ ছিল না লাজং-এর তরুণ ফুটবলারদের কাছে। ১৪ মিনিটে আমনার শট লাজং ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে যে গোলের সিরিজ শুরু হল, তা থামল ম্যাচের ৭৯ মিনিটে এসে। তাঐর মাঝে গোল দিয়ে ফেলেছেন এদু, দুটি গোল করেছেন লালডানমাওইয়া রালতে। তিনি হ্যাটট্রিকও করতে পারতেন, যদি কাতসুমি নিজে পেনাল্টি না নিয়ে রালতেকে সুযোগ দিতেন। ওই স্বার্থপরতাটা না করলে হয়তো জাপানির নামের পাশে গোল একটা কম হত, কিন্তু ইস্টবেঙ্গল জনতার আরও কাছে পৌঁছে যেতে পারতেন। নতুন ক্লাব যতই হোক।

কাতসুমি যেমন পরিশ্রম করে খেলেন, তেমনই খেলছেন। কিন্তু পা থেকে বল না ছাড়ার রোগ তাঁর থেকে গেছে আগের মতোই। চমৎকার খেললেন আল আমনা। নিজে গোল করলেন, রালতেকে গোলের ঠিকানা লেখা পাস বাড়ালেন। আরও কতকিছু। কিন্তু প্লাজার অফ ফর্ম গেল না। কয়েকটা গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন এদিন। সক্রিয়তাও দেখাচ্ছিলেন। কিন্তু এমন ছন্নছাড়া রক্ষণ সামনে পেয়েও যদি কোনো স্ট্রাইকার গোল না পান, তাহলে তাঁকে নিয়ে আর কতদিন স্বপ্ন দেখবে ক্লাব। শেষ পর্যন্ত তাঁকে তুলে চার্লসকে নামাতে হল খালিদকে। ম্যাচের সেরা হলেন রালতে। হওয়ারই কথা।

তবে খালিদের রক্ষণ এদিন পরীক্ষার মুখে পড়ল না একটুও। উল্টে ম্যাচের ৮১ মিনিটে ফ্রিকিক থেকে গোল করে গেল লাজং। গোলকিপার মিরশাদের ভূমিকা ওই গোলের পেছনে থেকেই গেল।

যাই হোক, পাঁচ গোল করে জয়ে ফিরল লালহলুদ। আই লিগের জন্য আত্মবিশ্বাস পেল দলটা। অক্সিজেন পেলেন খালিদ জামিল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here