কলকাতা: ডার্বি হারের রাতেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে প্লাজাকে। কোন ম্যাজিকে কে জানে, পরের দিনই চেন্নাই সিটি এফসি-তে সই করার খবর ছড়িয়েছিল ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর স্ট্রাইকারের। কিন্তু চোটের জন্য তা হয়নি। এখনও যা খবর, তাতে আই লিগের দ্বিতীয় ডিভিশনে মহামেডানের হয়ে খেলতে পারেন প্লাজা। ডার্বিতেই চোট পেয়েছেন ইস্টবেঙ্গলের প্রধান ভরসা আল আমনা। তাঁর পুরোনো চোট ছিল। সব মিলিয়ে আগামী দুই সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকবেন তিনি। অথচ আগামী কিছুদিনের মধ্যেই আই লিগে এক নম্বরে থাকা মিনের্ভা পঞ্জাবের সঙ্গে খেলতে হবে লালহলুদকে। ওই দুটো ম্যাচে জিততে পারলে খেতাব জয়ের অনেকটা কাছে পৌঁছে যাবে ইস্টবেঙ্গল।

অথচ বাজারে বিদেশির অভাব। এই অবস্থায় দল সাজাতে প্লাজার বদলে মোহনবাগানের ছাঁটাই ক্রোমাকেই বেছে নিল ইস্টবেঙ্গল।

যা খবর, তাতে বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে এসেছিলেন ক্রোমা। তখন ক্লাবের সব শীর্ষকর্তাই উপস্থিত ছিলেন। সম্ভবত তাঁকে ম্যাচপিছু টাকার চুক্তিতে নেওয়া হচ্ছে। বিষয়টা প্রায় চূড়ান্ত। মিনের্ভা ম্যাচেই হয়তো লালহলুদ জার্সিতে দেখা যাবে ক্রোমাকে। আবার কিছুদিন খেপ খেলা বন্ধ হয়ে যাবে ক্রোমার। একটাই বিষয় বাকি। ক্লাবের সহ সচিব শান্তিরঞ্জন দাশগুপ্ত ক্রোমার চোট খতিয়ে দেখছেন। তবে সেটায় আটকাবে বলে মনে হয় না।

কাতসুমির পর আরও একজন বাগানের ছেড়ে দেওয়া ফুটবলারকে সই করিয়ে আই লিগে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের থেকে এগিয়ে রয়েছে লালহলুদ।

বাজোকে ছেড়ে দেওয়ার কথাও লালহলুদ কর্তারা ভাবছেন, তবে তা নিয়ে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here