chelseafacup2018

চেলসি – ১        ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড – ০

ওয়েবডেস্ক: এফএ কাপ চ্যাম্পিয়ন চেলসি। শনিবার ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ফাইনালে তারা হারাল চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডকে। প্রথমার্ধে এডেন হ্যাজার্ডের করা একমাত্র গোলে তাঁরা দেখল জয়ের মুখ। এই নিয়ে অষ্টমবার এফএ কাপ জয় লন্ডনের ক্লাবটির। এ দিন শুরুতে অবশ্য দু’দল একে অপরকে মেপে খেলার চেষ্টা করে। আক্রমণের থেকে মাঝমাঠ দখলের লড়াই ছিল বেশি। মরশুমে ট্রফি জয়ের এটাই শেষ সুযোগ ছিল দু’দলের কাছে, তাই ধীরে ধীরে খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করে তারা। ন’মিনিটে হ্যাজার্ডের শট বাঁচিয়ে দেন ইউনাইটেড গোলকিপার দে গিয়া। প্রতি আক্রমণে ম্যাচের ফেরার ইঙ্গিত দেয় ইউনাইটেডও। সৌজন্যে ইয়াং, স্যাঞ্চেজরা। তবে ২১ মিনিটে বক্সে হ্যাজার্ডকে ইচ্ছাকৃত ফাউল করেন জোন্স। ফলে চেলসিকে পেনাল্টি দিতে ভুল করেননি রেফারি মাইকেল অলিভার। গোল করে চেলসিকে এগিয়ে দেন সেই হ্যাজার্ডই। এগিয়ে গিয়ে আক্রমণ বাড়াতে থাকে চেলসি। বিরতিতে যাওয়ার আগে সুযোগ পেয়েছিল ইউনাইটেডও। তবে তা কার্যকর করতে ব্যর্থ হন মার্কস র‍্যাশফর্ড।

দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য শুরুটা ভালোই করে মোরিনহোর ছেলেরা। র‍্যাশফর্ডের ফ্রি-কিক বাঁচিয়ে দেন চেলসি গোলকিপার কুরতুইস। ইয়াংয়ের শট একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ফের সুযোগ পান র‍্যাশফর্ড কিন্তু কার্যকর হয়নি। ক্রমাগত আক্রমণে থাকার ফলে গোল পেয়েও গিয়েছিল ইউনাইটেড। কিন্তু অফসাইডের কারণে বাতিল হয়ে যায় দলের তারকা খেলোয়াড় আলেক্সিস স্যাঞ্চেজের গোল। ব্যবধান বাড়ানোর লক্ষ্যে আক্রমণ শানাতে থাকে চেলসিও।

এ দিন সারা ম্যাচ জুড়ে খেললেন গোলদাতা হ্যাজার্ড। সুযোগ পেয়েছিলেন দলের অন্যতম চর্চিত খেলোয়াড় মার্কস অ্যালন্সোও। কিন্তু তাঁর অবধারিত গোলমুখ শট বাঁচিয়ে দেন ইউনাইটেড এবং বিশ্বের অন্যতম সেরা গোলকিপার দে গিয়া। তবে শুধু তিনি একা নন, সারা ম্যাচ ভালো খেললেন চেলসির গোলরক্ষক কুরতুইসও। ফলে শেষমেশ এক গোলের ব্যবধানেই ট্রফি জয় দিয়ে মরশুম শেষ করল ব্লু’জরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here