mercyside

এভারর্টন – ০             লিভারপুল – ০

ওয়েবডেস্ক: গোলশূন্য ভাবে শেষ হল ২৩১ তম মার্সিসাইড ডার্বি। এদিন ইপিএলে ঘরের মাঠে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুলের মুখোমুখি হয়েছিল এভারর্টন। প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক শুরু করে এভারটন। ১৩ মিনিটে ম্যাচের প্রথম শট তাদের। তসুনের শট একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট। প্রতি আক্রমণে ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত দেয় লিভারপুলও। মিনিট খানেকের ব্যবধানে প্রথমার্ধের এবং অবশ্যই ম্যাচের সবথেকে সহজ সুযোগটি হাতছাড়া হয় লিভারপুলের। ফাঁকা গোলে নেওয়া শট বিপক্ষ গোলকিপারের হাতে মারেন, লিভারপুলের সোলাঙ্কি। সময় যত এগোয়, আক্রমণ প্রতি আক্রমণে ডার্বির উত্তেজনা বাড়তে থাকে। বোলাসির একক দক্ষতায় নেওয়া শটে অবধারিত গোল বাঁচান লিভারপুল গোলকিপার ক্যারিয়াস। ব্যস্ত থাকতে হয় এভারর্টন গোলকিপারকেও। মিলনারের গোলমুখি শট বাঁচান পিকফর্দ। গোলের জন্য দু’দল আক্রমণ বাড়ালেও, প্রথমার্ধে গোলশূন্য।

evertonvsliverpool

দ্বিতীয়ার্ধের খেলা অবশ্য কিছুটা এলোমেলো। ম্যাচে আক্রমণ থাকলেও সময় যত এগোয়, দু’দলের শারীরিক শক্তির প্রদর্শন বাড়তে থাকে। তবে রেফারির দক্ষতায় তা অবশ্য বৃদ্ধি পায়নি। গোলের লক্ষ্যে আক্রমণে ঝাঁজ বাড়ান লিভারপুলের জার্মান কোচ য়ুরগেন ক্লপ। চেম্বারলিন, ফিরমিনোদের দিয়ে আক্রমণ বাড়াতে থাকে তারা। তবে গোল মুখ খুলতে ব্যর্থ। শেষ দিকে আক্রমণ ফেরার চেষ্টা করলেও ঘরের মাঠে গোল মুখ খুলতে ব্যর্থ এভারর্টনও।

ম্যাচ শেষে এভারর্টন কোচ স্যাম অ্যালারডাইস জানান, “ ছেলেরা যথেষ্ট চেষ্টা করেছে, তবে ঘরের মাঠে জিতলে বেশি খুশি হতাম”।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন