মাত্র কয়েকমাসেই কলকাতা শহরটার সঙ্গে জড়িয়ে গেছেন তিনি। ফুটবলের বাইরে সময় কাটান পরিবারের সঙ্গে। উনি আল-আমনা। আই লিগের আগে খবর অনলাইনকে সাক্ষাতকার দিতে গিয়ে কখনও ভাবুক, কখনও নস্টালজিক, কখনও আবার স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে ড্রিবল করে গেলেন প্রশ্নবাণ।

প্রশ্ন: আইলিগ শুরু হতে এক সপ্তাহও বাকি নেই। কতটা তৈরি আপনি?

আমনা: আমি মাঠে নামতে প্রস্তুত। আমাদের দলও দারুণ চনমনে। আইএসএল দলগুলির বিরুদ্ধে আমরা ভাল খেলেছি। কাতসুমি ও এডু যোগ দেওয়ায় দলের শক্তি অনেকটা বেড়েছে। প্রথম ম্যাচে মাঠে নামার জন্য মুখিয়ে আছি।

প্রশ্ন:  প্রথম ম্যাচেই প্রতিপক্ষ আইজল, আপনার পুরোনো দল।

আমনা: হ্যাঁ। আমি পেশাদার ফুটবলার, তাই কলকাতায় এসেছি। কিন্তু, আইজলই আমাকে ভারতীয় ফুটবলে প্রতিষ্ঠা দিয়েছে। অনেক সুখস্মৃতি এখনও ভেসে আসে। তবে এখন ইস্টবেঙ্গল ছাড়া কিছু ভাবছি না। নতুন দলের হয়ে মাঠে নিজেকে উজার করে দেব।

প্রশ্ন: আইজলের বিরুদ্ধে গোল করলে সেলিব্রেট করবেন?

আমনা: দেখুন  আমি ওদের শ্রদ্ধা করি। সীমিত ক্ষমতা নিয়ে আমরা গতবছর যেভাবে লড়েছিলাম, তা ভোলার নয়। ওদের বিরুদ্ধে গোল করলে তাই সেলিব্রেট করতে পারব না। তবে  আমি প্রথম ম্যাচ থেকেই গোল করে ইস্টবেঙ্গলকে জেতাতে চাই।

প্রশ্ন: দ্বিতীয় ম্যাচই ডার্বি।

আমনা: এতে সমস্যা নেই। সবদলের বিরুদ্ধেই আমাদের খেলতে হবে। মোহনবাগানের বিরুদ্ধে নামতে আমার ভাল লাগে। কিন্তু  এখন আমরা ডার্বি নিয়ে ভাবছি না। ম্যাচ বাই ম্যাচ এগোতে হবে। আইজল এফসিকে হারাতে পারলেই আইলিগ অভিযানের পথটা মসৃণ হবে লালহলুদের।

প্রশ্ন: দলে অনেক নতুন ফুটবলার। কতটা কঠিন হবে আইলিগ অভিযান?

আমনা: নতুনদের মধ্যে একটা অসম্ভব জেদ ও ক্ষিদে আছে, যা আমাদের কাজে লাগবে। এছাড়া রালতে , ব্র্যান্ডন, চুল্লোভাদের সঙ্গে গতবছর খেলেছি। আমাদের বোঝাপোড়াও দুর্দান্ত। কাতসুমি আসায় আমাদের মাঝমাঠের শক্তি বেড়েছে। সবমিলিয়ে আমাদের একটা দল হয়ে লড়তে হবে।

প্রশ্ন: কিন্তু ইস্টবেঙ্গলের চালিকাশক্তিই তো আপনি।

আমনা: দেখুন, বিদেশি হয়ে বাড়তি দায়িত্ব নিতে তো হবেই। আমি তো এরজন্যই এখানে এসেছি। বাড়তি দায়িত্ব নিতে আমার ভাল লাগে। সববিভাগেই তো একজনকে নেতৃত্ব দিতে হয়।কোচ চাইলে জেতার জন্য আমি বাড়তি দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত।

প্রশ্ন: লালহলুদে আই লিগ নেই অনেক বছর হল। কতটা চাপ অনুভূত হচ্ছে এখানে?

আমনা:  চাপ নেব কেন? চাপের কথা ভাবলেই নিজেদের সেরা খেলাটা খেলতে পারব না।ইস্টবেঙ্গল জার্সিতে আইলিগ জিতব বলেই এখানে এসেছি। তাই, নতুন করে এসব ভাবছি না। আর, আমনাকে গোল করে লালহলুদকে  জেতাতে হবেনা। আমাদেরর দলে অনেক ফুটবলার গোল করতে পারে

প্রশ্ন: কলকাতা কেমন উপভোগ করছেন?

আমনা: বেশি ঘোরার সময় পাইনি। তবে  আমার পরিবার, স্ত্রী ও মেয়েদের এই শহরটা  ভাল লেগে গেছে। সাউথসিটি আমাদের পছন্দের জায়গা। ভারতে এসে এই শহরটা সম্পর্কে অনেককিছু শুনেছি। আইলিগ জিতলে কলকাতার সব জায়গা ঘুরে দেখব।

প্রশ্ন: আইলিগ জিতলে কাকে উৎসর্গ করবেন ?

আমনা: অবশ্যই সমর্থকদের। এখানে এসে ওদের আবেগ ও অনুভূতির সঙ্গে জড়িয়ে গেছি। বুঝেছি ওরা আইলিগ জেতার জন্য অনেক বছর অপেক্ষা করেছে। সম্পূর্ণ নতুন পরিবেশ থেকে এলেও ওরা আমাকে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছে। তাই আইলিগ জিতলে ওদেরকেই উৎসর্গ করব।

সাক্ষাতকার: সৌপ্তিক মারিক

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here