কলকাতা:বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা ফিফার কাউন্সিল মিটিং ভারতে। তাও আবার কলকাতায়। সাংবাদিক বৈঠকে ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ানি ইনফ্যান্তিনোর পাশে বসে এআইএফএফ-এর প্রেসিডেন্ট প্রফুল প্যাটেল। সত্যিই শুক্রবার বিকেলে যেন রূপকথাই বাস্তব হয়ে গেল ভারতীয় ফুটবলের মক্কায়। আর সেই সাংবাদিক বৈঠক থেকে ভারতবাসীকে ফিফা প্রেসিডেন্ট বললেন, “ক্রিকেট ভুলে যান, ফুটবলই ভবিষ্যত”।

কথাটা যে নেহাতই মজা করে বলছেন, তা জানিয়ে দিতে ভোলেননি ফিফা প্রেসিডেন্ট। তবে পরিষ্কার জানিয়েছেন ভারত ফিফার অগ্রাধিকারে রয়েছে। কারণ ভারত একটি দেশ হলেও তা মহাদেশের সমান। গোটা বিশ্বের জনসংখ্যার ৬ ভাগের ১ ভাগ এখানে থাকে। তাই ভারতের ফুটবল এগোলে তা সারা দুনিয়ার কাজে লাগবে। তবে তার জন্য যে ভারতে ফুটবলের সংস্কৃতি, মূল্যবোধ তৈরি করতে হবে, বলেছেন ইনফ্যান্তিনো। একটি বিশ্বকাপ আয়োজন করার চেয়ে সেটা যে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ, তাও জানিয়েছেন ফিফা প্রেসিডেন্ট।

ফিফা প্রেসিডেন্টের কথায় উঠে এসেছে কলকাতা। গুয়াহাটির সেমিফাইনাল কলকাতায় চলে আসার পর, সার্ভার ক্র্যাশ করে অনলাইন টিকিট ব্যবস্থা যে ভেঙে পড়েছিল, তা দেখে বিস্মিত ইনফ্যান্তিনো। বারবার জানালেন ফিফা তাঁর যাবতীয় সামর্থ দিয়ে ভারতীয় ফুটবলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবে।

ভারতে অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপের দাবি

সাংবাদিক বৈঠকে ফেডারেশনের সভাপতি খোলাখুলি বললেন, কাউন্সিল মিটিং-এ তিনি ২০১৯ সালের অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপ ভারতে করার দাবি জানিয়েছেন। চলতি বিশ্বকাপের ৬টি স্টেডিয়াম ছাড়াও ভারতের যে আরও ৬টি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের খেলা করার মতো পরিকাঠামো রয়েছে, জানিয়েছেন তাও। এ ব্যাপারে ফিফা প্রেসিডেন্ট সরাসরি কোনো উত্তর দেননি। বলেছেন, বহু দাবিদার রয়েছে, আগামী বছরের শুরুতে এ বিষয়ে ফিফা সিদ্ধান্ত নেবে। শেষ অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপ হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। ফিফার রীতি অনুযায়ী, একই মহাদেশে পরপর দুটি বিশ্বকাপ হয় না। সেক্ষেত্রে পরেরটা ভারতের পাওয়ার কথা নয়। কিন্তু নেতিবাচক কোনো ইঙ্গিতও দেননি ইনফ্যান্তিনো। বরং বলেছেন, ভারতকে তারা একটা মহাদেশের মতোই মনে করেন। ২০১৯-এর অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপের পর বিশ্বকাপ আয়োজনের নীতিতে ফিফা যে আমূল পরিবর্তন আনতে চলেছে, তাও জানিয়েছেন তিনি। সেক্ষেত্রে ভারতের মতো বড়ো দেশ ছাড়া, কোনো একটি দেশে গোটা বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের দায়িত্ব দেওয়া হবে না। তবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে আগামী বছরের অক্টোবরের ফিফা কাউন্সিল মিটিং-এ।

 সেন্টার ফর এক্সেলেন্স

ভারতীয় ফুটবলের জন্য একটি সেন্টার ফর এক্সেলেন্স তৈরির দাবি জানিয়েছেন ফেডারেশন প্রেসিডেন্ট প্রফুল প্যাটেল। তার জন্য ফিফা যাতে টেকনিক্যাল এবং অন্যান্য সব সুযোগসুবিধার ব্যবস্থা করে, তার আবেদনও জানিয়েছেন তিনি। খুব শিগগিরই ফেডারেশন এ ব্যাপারে চূড়ান্ত ঘোষণা করবে, বললেন প্রফুল। ইনফ্যান্তিনো যাবতীয় সাহায্যর আশ্বাসও দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: ফুটবলের ‘সেন্টার ফর এক্সেলেন্সে’র জন্য রাজারহাটে জমি দিল রাজ্য সরকার

চ্যালেঞ্জ

সাংবাদিক বৈঠকে মূল সমস্যাটার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন ফেডারেশন প্রেসিডেন্ট। ভারতে এই মুহূর্তে ফুটবল জনপ্রিয় হাতে গোনা কয়েকটি জায়গায়। পশ্চিমবঙ্গ, উত্তরপূর্ব, কেরল, গোয়া। এক বাইরে বিস্তীর্ণ অঞ্চলে ফুটবলের তেমন আকর্ষণ নেই। গোটা ভারত জুড়ে ফুটবলকে জনপ্রিয় করার দায়িত্ব এআইএফএফ-এরই। সেই কাজটা করতে না পারলে ফিফার সাহায্য যে পাওয়া যাবে না, কার্যত সেটা প্রকাশ্যই মেনে নিয়েছেন প্রফুল।

তবে ভারতকে নিয়ে এদিন সাংবাদিক বৈঠকে ফিফা প্রেসিডেন্ট যে আগ্রহ দেখিয়েছেন, তাতে আশার আলো দেখতেই পারেন দেশের ফুটবলমোদীরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here