wenger-epl

ওয়েবডেস্ক: বিদায়ী কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গারকে ঘরের মাঠে শেষ ম্যাচে, স্মরণীয় জয় উপহার দিল আর্সেনাল। রবিবার ইপিএলে তারা মুখোমুখি হয়েছিল সপ্তম স্থানে থাকা বার্নলের বিরুদ্ধে। ওয়েঙ্গারকে ঘরের মাঠে শেষ বারের জন্য দেখতে, এ দিন পুরো স্টেডিয়ামই ভর্তি ছিল। গত দু’টি ম্যাচে হারের ফলে, এ দিন শুরু থেকেই আক্রমণ শানাতে থাকে আর্সেনাল। যার ফল ম্যাচের মাত্র চোদ্দো মিনিটে, ওয়েঙ্গারের শেষ সই করানো খেলোয়াড় পিয়ের-এমরিক অবেমেয়াংয়ের গোলে এগিয়ে যায় আর্সেনাল। এদিন শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আক্রমণাত্মক ছিল আর্সেনাল। দ্বিতীয় গোলের জন্য প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় তাদের। নিজের একক দক্ষতায় বিরতিতে আর্সেনালকে দু’গোলে এগিয়ে দেন লাকাজেট। দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণাত্মক গানার্স। যার ফল, ব্যবধান আরও বাড়ায় তারা। প্রথমে কোলাসিনাচের বুলেট শটে গোল। এরপর ইয়োবির একক দক্ষতায় চতুর্থ গোল। এবং শেষে নিজের দ্বিতীয় এবং দলের হয়ে পঞ্চম গোল সেই অবেমেয়াংয়ের। ওয়েঙ্গারের সঙ্গে এ দিন আর্সেনালের হয়ে শেষ ম্যাচ খেললেন বিদায়ী খেলোয়াড় পের মারতাসাকার। ওয়েঙ্গারের অধীনে ৬০৬টি হোম ম্যাচের মধ্যে ৪১৫টি-তে জয় পেল আর্সেনাল।

ম্যাচ শেষে ওয়েঙ্গারকে আর্সেনালে বাইশ বছর কোচিং সামলানোর জন্য স্মরণীয় সম্মান জানায় আর্সেনাল ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে অপর ম্যাচে ঘরের মাঠে আটকে গেল চ্যাম্পিয়ন ম্যাঞ্চেস্টার সিটি। অবনমনের আওতায় থাকা হাডারসফিল্ড টাউনের সঙ্গে গোলশূন্য শেষ করল তারা।

তবে এ দিনের বড় ম্যাচে ঘরের মাঠে লিভারপুলকে এক গোলের ব্যবধানে হারিয়ে দিল চেলসি। প্রথমার্ধে অলিভার জিরোর গোলে জয় পেয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ স্থানের জন্য লড়াই জমিয়ে দিল চেলসি।

এই মুহূর্তে তৃতীয় স্থানে লিভারপুল (৩৭ ম্যাচে ৭২ পয়েন্ট), চতুর্থ স্থানে টটেনহ্যাম হটস্পার (৩৬ ম্যাচে ৭১ পয়েন্ট) এবং পঞ্চম স্থানে থাকা চেলসি (৩৬ ম্যাচে ৬৯ পয়েন্ট)।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here