৫টি কাজ, যা আগামী মরশুমে করা দরকার ইপিএল চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটির

পরপর দু’বছর চ্যাম্পিয়ন্স হয়েছে তারা গুয়ারদিওলার নেতৃত্বে। ফলে আগামী মরশুমেও যে তারা নিজেদের খেতাব ধরতে মরিয়া হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

0
mancity

ওয়েবডেস্ক: লিভারপুলকে পিছনে ফেলে ইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। পরপর দু’বছর চ্যাম্পিয়ন্স হয়েছে তারা গুয়ারদিওলার নেতৃত্বে। ফলে আগামী মরশুমেও যে তারা নিজেদের খেতাব ধরতে মরিয়া হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

দেখে নিন তেমনই পাঁচটি কাজ, যা আগামীদিনে করা উচিত সিটির খেতাব ধরে রাখার জন্য-

১। ধারাবাহিকতা রাখা

২০১৭/১৮ মরশুমে টানা ২০টি ম্যাচ যেতে ম্যানসিটি। ২০১৮/১৯ মরশুমে টানা ১৪টি ম্যাচ জেতে সিটি। এই মুহূর্তে সিটির প্রধান প্রতিপক্ষ লিভারপুল। বাকি হেভিওয়েট দলগুলি কিছুটা পিছিয়ে ফলে আগামী মরশুমেও বাকিদের টেক্কা দেওয়ার জন্য নিজেদেরকে আরও ধারাবাহিক রাখতে হবে সিটিকে।

২। তাড়াতাড়ি দলগঠন করা

দলে প্রায় সব পজেশনেই ফুটবলার আছে ম্যানসিটির। কিন্তু আগামী মরশুমের জন্য আরও কিছু ফুটবলারকে দলে নিতে চায় ম্যানসিটি। একজন সেন্টার ব্যাক, ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার এবং লেফট ব্যাককে দলে দরকার সিটির। ফলে যত তাড়াতাড়ি দল তৈরি করতে পারবে সিটি, তত তাড়াতাড়ি কম্বিনেশন তৈরি করতে পারবে তারা।

৩। বয়স্ক খেলোয়াড়দের পরিবর্ত

আগুয়েরো, ফার্নান্দিনহো, সিলভা এবং কোম্পানির মতো খেলোয়াড়রা এই মুহূর্তে কেরিয়ারের গোধূলি লগ্নে। ফলে তাঁদের বিকল্প তৈরি করতে মরিয়া সিটি। চলতি মরশুমে লাপোর্ট, বারনারদো, জিঙ্কেঞ্চোরা নজর কাড়লেও আরও কিছু ফুটবলারকে তৈরি রাখতে চায় তারা।

৪। লোনে এবং বেঞ্চে থাকা ফুটবলারদের ছেড়ে দেওয়া

সদ্য শেষ হওয়া মরশুমে ১৪জন ফুটবলার লোনে অন্য দলে খেলেছেন। অন্য দিকে গান, উনাল এবং কেলেচিকে বিক্রি করে লাভের মুখও দেখেছে সিটি। যারা বেঞ্চে বসে সময় কাটাচ্ছিলেন। একই সঙ্গে প্যাটট্রিক রবার্টস, এবং মারলোস মোরেনোর মতো ফুটবলারেরও আগামী দিনে সুযোগ পাওয়া কম। ফলে তাদের বিক্রি করতে চায় সিটি।

৫।  তরুণ ফুটবলারদের আরও সুযোগ দেওয়া

ইতিমধ্যেই সিটি জার্সিতে নজর কেড়েছেন অনূর্ধ্ব১৯ বিশ্বকাপ জয়ী ইংল্যান্ড দলের সেরা ফুটবলার ফিল ফোদেন। সিটির প্রথম একাদশে বেশ নজর কেড়েছেন তিনি। ফলে আগামী দিনে আরও তরুণ ফুটবলারকে দলে চায় সিটি। তালিকায় রয়েছেন ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় সারির লিগে খেলা ওয়েস্ট ব্রমউইচের খেলোয়াড় তোঁসিন আদারাবিয়ো যিনি বেশ নজর কেড়েছেন সদ্য শেষ হওয়া মরশুমে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.