united-facup

ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড – ২          টটেনহ্যাম হটস্পার – ১

ওয়েবডেস্ক: এফএ কাপের ফাইনালে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। শনিবার ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে প্রথম সেমিফাইনালে পিছিয়ে থেকেও তারা হারাল টটেনহ্যাম হটস্পারকে। এ দিন অবশ্য আক্রমণাত্মক ভাবেই শুরু করে টটেনহ্যাম। কেনের শট একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। প্রতি-আক্রমণে নিজেদের চেনানোর চেষ্টা করে ইউনাইটেডও। তবে আক্রমণের বেশির ভাগ রাশ নিজেদের হাতে রাখার ফল অবশেষে পেয়ে যায় টটেনহ্যাম। ১১ মিনিটে প্রথম গোল তাদের। সৌজন্যে দলের নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় আলি। গোল পেয়ে আক্রমণ আরও বাড়াতে থাকে তারা। ফের সুযোগ পান দলের প্রধান স্ট্রাইকার হ্যারি কেন। তবে এ বারও গোল করতে ব্যর্থ হন তিনি। সুযোগ হাতছাড়া করেন এরিকসনও। তবে প্রতি-আক্রমণে পাওয়া সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ম্যাচে সমতা ফেরায় ইউনাইটেড। গোল করেন তাদের অন্যতম ভরসা আলেক্সিস স্যাঞ্চেজ। সমতা ফিরিয়ে আক্রমণ শানাতে থাকে ইউনাইটেডও। অবশ্য সুযোগ হাতছাড়া করেন লিংগার্ড। এর পর মাঝ ঠ দখলের চেষ্টায়, কিছুটা ছন্নছাড়া ফুটবল দু’দলেরই। তবে প্রথমার্ধের শেষ দিকে নাটক বাকি ছিল। প্রথমে সহজ সুযোগ হাতছাড়া ইউনাইটেডের পোগবার। এর পর অতিরিক্ত সময়ে ডায়ারের শট পোস্টে না লাগলে বিরতিতে এগিয়ে থাকত টটেনহ্যাম।

দ্বিতীয়ার্ধে জয়ের লক্ষ্যে শুরু থেকেই আক্রমণ দু’দলের। তবে এ দিন তিনি যে নিজের ফর্মের একদম ধারে কাছে ছিলেন না, তা ফের প্রমাণ করলেন টটেনহ্যাম এবং ইংল্যান্ড জাতীয় দলের প্রধান স্ট্রাইকার কেন। ফের সুযোগ হাতছাড়া তাঁর। তবে ৬৩ মিনিটে খেলার বিপক্ষে গিয়ে বাজিমাত ম্যান ইউয়ের। ম্যাচে প্রথম বারের জন্য ইউনাইটেডকে এগিয়ে দেন দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় হেরেরা। ব্যবধান বাড়ানোর লক্ষ্যে আক্রমণে গতি আনতে থাকে ম্যান ইউ। ফের এগিয়ে যেতে পারত তারা। তবে সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেন লুকাকু। সমতা ফেরানোর লক্ষ্যে শেষ দিকে আক্রমণ বাড়াতে থাকে টটেনহ্যাম। সৌজন্যে পরিবর্তিত আসা মওরা, ল্যামেলা, ওনয়ামারা। তবে ম্যান ইউ ডিফেন্সকে ভেদ করে সমতা ফেরাতে পারেনি তারা।

ম্যাচ শেষে ইউনাইটেড কোচ মোরিনহো জানান, “পিছিয়ে পড়ে জয় পেয়ে ভালো লাগছে। এই মরশুমে ট্রফি জেতার এটাই শেষ সুযোগ। ফাইনালে যে-ই আসুক নিজেদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব আমরা”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here