কলকাতা: অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপের রেশ এখনও ভারত তথা কলকাতাবাসীর মন থেকে যায়নি। এর মধ্যেই আরও এক ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনের পথে ভারত। ভারতের ফুটবলের বাজারকে ‘ঘুমন্ত দৈত্য’ বলে চিহ্নিত করেছে ফিফা। সেই জায়গা থেকেই নানারকম উদ্যোগ চলছে প্রতিনিয়ত। তার মধ্যে দেশের তৃণমূল স্তরে ফুটবলকে জনপ্রিয় করার জন্য রাজ্যে রাজ্যে বেবি লিগের আয়োজন। তেমনই রয়েছে নানা আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার স্বাদ ভারতবাসীর ঘরে এনে দেওয়ার প্রয়াস।

গত বছর ভারতে অনূর্ধ্ব ১৭ ফুটবল বিশ্বকাপের জন্য স্টেডিয়াম সহ নানা পরিকাঠামো তৈরি করা হয়েছিল। সেই পরিকাঠামোকে  আরও বেশি করে কাজে লাগানোর জন্য আরও কিছু প্রতিযোগিতা আয়োজনের দাবি ছিল এআইএফএফ-এর। সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০২০ সালে মেয়েদের অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের উদ্যোগ নেয় ফেডারেশন। ওই প্রতিযোগিতা আয়োজনের জন্য আগ্রহ প্রকাশের শেষ তারিখ ছিল ২৪ আগস্ট। ভারত ছাড়া অন্য কোনো দেশ সেই আগ্রহ প্রকাশ  করেনি। ২৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ভারতকে আরও একবার ভারতকে জানাতে হবে তাঁরা আগ্রহী কিনা। তারপর ২০১৯-এর জানুয়ারির মধ্যে বিড জমা দিতে হবে। আগামী বছরের মার্চের মধ্যেই আয়োজক দেশের নাম ঘোষণা করবে ফিফা। ভারত ছাড়া অন্য কোনো দেশে আগ্রহ প্রকাশ না করায়, বড়ো কোনো অঘটন না ঘটলে ভারতের নাম ঘোষণা কেবল সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। বস্তুত, ফিফার দিক থেকে ভারতকে ওই প্রতিযোগিতার দায়িত্ব দেওয়ার ব্যাপারে বোঝাপড়া না থাকলে অন্যান্যে দেশও আগ্রহ প্রকাশ করত বলেই ধারণা ফুটবল মহলের।

অন্যদিকে ঘরেও শুরু হয়ে গেছে তৎপরতা। ভারতে মহিলা ফুটবলে প্রথম সারিতে রয়েছে উত্তরপূর্বের মেয়েরা। কিন্তু উত্তরপূর্বের নানা পরিকাঠামোগত অসুবিধার কথা মাথায় রেখে কলকাতায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও ফাইনাল আয়োজনের কথা ভাবা হয়েছে। এছাড়া হবে আরও দু-তিনটি ম্যাচ। এই মর্মে সরকারের তরফ থেকে আইএফএ সচিবের কাছে প্রস্তুতি নেওয়ার পরামর্শও চলে এসেছে। মূলত কলকাতাকে কেন্দ্রে রেখেই আয়োজিত হবে এই প্রতিযোগিতা।

২০০২ সাল থেকে ফিফা এই প্রতিযোগিতা আয়োজন করছে। প্রথমে এটি ছিল অনূর্ধ্ব ১৯, পরে অনূর্ধ্ব ২০ হয়। প্রতি দুই বছর অন্তর প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জয়ী হয়েছে জাপান। ভারতে প্রযোগিতা হলে স্বাভাবিক নিয়মেই বিশ্বকাপে অংশ নেবে ভারতের মেয়েরাও।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন