salahuclfinal

লিভারপুল – ৫       এএস রোমা – ২

ওয়েবডেস্ক: ঘরের মাঠে বড়ো জয় লিভারপুলের। মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে তারা হারাল এএস রোমাকে।

এ দিন শুরুটা ভালোই করেছিল রোমা। স্ত্রুটম্যানের শট বাঁচিয়ে দেন লিভারপুল গোলকিপার ক্যারিয়াস। মাঝমাঠ দখল করে আক্রমণ বাড়াতে থাকে ইতালির অন্যতম সেরা এই ক্লাবটি। ভাগ্য সুপ্রসন্ন থাকলে এগিয়ে যেতে পারত তারা। কোলারভের শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। তবে প্রথমার্ধের প্রথম কুড়ি মিনিট যদি রোমার হয় তা হলে বাকিটা জুড়ে শুধুই লিভারপুল। যত সময় যায় ম্যাচে আধিপত্য বিস্তার করতে থাকে রেডসরা। ফাঁকা গোলে বল ঢোকাতে ব্যর্থ হন লিভারপুলের মানে। একবার নয় বেশ কয়েক বার সুযোগ হাতছাড়া করেন তিনি। আক্রমণে চাপ রেখে গোল করে ফেলেছিল তারা। তবে অফসাইডের জন্য বাতিল হয়ে যায় মানের গোল। ক্রমাগত চাপের ফসল অবশেষে পেয়ে যায় লিভারপুল। ৩৬ মিনিটে বিশ্বমানের গোলে লিভারপুলকে এগিয়ে দেন এই মরশুমে তাদের সেরা খেলোয়াড় মহাম্মাদ সালাহ। এই সময় একচ্ছত্র আক্রমণ শানাতে থাকে লিভারপুল। ফের গোল করে ফেলত তারা। লাভরিনের শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। তবে প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে সালাহ-র দ্বিতীয় গোলের সুবাদে, বিরতিতে দু’গোলে এগিয়ে থেকে খেলা শেষ করে লিভারপুল।

uclmatch

প্রথমার্ধ যে ভাবে শেষ করেছিল লিভারপুল, দ্বিতীয়ার্ধের শুরুটাও সে ভাবেই করে তারা। যত সময় যায় ব্যবধান বাড়ানোর লক্ষ্যে আক্রমণ বাড়াতে থাকে তারা। অবশ্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি তাদের। দশ মিনিটের মধ্যে গোল তাদের। এ বার অবশ্য নিজে গোল না করলেও মানেকে দিয়ে গোল করালেন সালাহ। এই সময় রোমাকে নিয়ে প্রায় ছেলেখেলা করতে থাকে লিভারপুল। এর রেশ কাটতে না কাটতেই ফের গোল। দলের হয়ে চতুর্থ গোলটি করেন ফিরমিনো। তবে এখানেই শেষ নয়। গোলের ধারা অব্যাহত রাখে লিভারপুল। দশ মিনিটের ব্যবধানে নিজের দ্বিতীয় এবং দলের পঞ্চম গোলটি করে যান সেই ফিরমিনো। তবে যখন মনে হচ্ছিল দ্বিতীয় লেগ শুধু নিয়মরক্ষার ম্যাচ হতে চলেছে, ঠিক সেই সময় খোলস ছেড়ে বেড়িয়ে আসে রোমা। ম্যাচের শেষ কুড়ি মিনিট অ্যাওয়ে গোলের গুরুত্বকে মাথায় রেখে প্রবল ভাবে ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করে তারা। যার ফল, ৮১ মিনিটে প্রথম গোল করে ব্যবধান কমান দলের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার জেকো। এর মিনিট পাঁচেকের মধ্যে ফের গোল তাদের। বক্সের মধ্যে ইচ্ছাকৃত হাতে বল লাগান লিভারপুলের মিলনার। পেনাল্টি থেকে অবশ্য গোল করতে ভুল করেননি রোমার পেরত্তি।


ম্যাচ শেষে লিভারপুল কোচ য়ুরগেন ক্লপ জানান, “আমরা পাঁচ গোলে এগিয়ে গিয়েছিলাম। তবে ওঁরা শেষদিকে গোল করে দ্বিতীয় লেগ জমিয়ে দিল। এটাই ফুটবল। তবে দ্বিতীয় লেগে নিজেদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব আমরা”।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here