কলকাতা: ডার্বিতে হারলেও এখনও জীবন্ত আই লিগ জয়ের সোনালি স্বপ্ন। আর সেই স্বপ্নকে রূপ দিতে চেষ্টার ত্রুটি রাখছেন না খালিদ জামিল এবং তাঁর সৈনিকরা। আই লিগে এক নম্বরে থাকা মিনের্ভা পঞ্জাবের সঙ্গে দুটি ম্যাচই বাকি লালহলুদের। এই দুটি ম্যাচ থেকে ৬ পয়েন্ট তুলে নিতে পারলে লিগ জয়ের খুব কাছে পৌঁছে যাবে ইস্টবেঙ্গল। মঙ্গলবার বারাসতে দুপুর দুটোয় খেলা। দেখা যাক, ম্যাচে কী ভাবে ঘুঁটি সাজিয়েছেন মুম্বইকর কোচ।

  • লুই ব্যারেটোকে নিয়ে কোচ-কর্তারা খুশি নন। মিরশাদকে নিয়েও অস্বস্তি আছে। তাই মিরশাদকে না নামিয়ে মিনের্ভার বিরুদ্ধে গোলে অভিষেক হতে পারে উবেইদ কিংবা বঙ্গসন্তান দিব্যেন্দু সরকারের। তবে উবেইদের সম্ভাবনাই বেশি।
  • ১৮ জনের দলে রাখা হচ্ছে না অর্ণব মণ্ডলকে। রক্ষণে খেলবেন এডুর সঙ্গে গুরবিন্দর(এদিন সাংবাদিক বৈঠকে খালিদের সঙ্গে হাজির ছিলেন গুরবিন্দর)। দুদিকে সালামরঞ্জন ও মেহতাব সিং। মেহতাবের জায়গায় পরে নামতে পারেন চুল্লোভা।
  • সামনে এক স্ট্রাইকার নিয়ে খেলবে ইস্টবেঙ্গল। থাকবেন ডুডু।
  • মাঝমাঠে পাঁচজন। কাতসুমি, লোবো, বাজি, ক্রোমা ও রালতে।

মিনের্ভার বিরুদ্ধে ম্যাচের পরই মোহনবাগান থেকে ছাঁটাই হয়েছিলেন ক্রোমা। আবার সেই মিনের্ভার বিরুদ্ধেই ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে অভিষেক হবে তাঁর। আমনার জায়গা তিনি খেলবেন। তাঁকে নিজেকে প্রমাণ করতে হবে, বললেন খালিদ। তবে তাঁর দাবি আই লিগ নিয়ে হিসেব করছেন না, ভাবছেন মিনের্ভা ম্যাচ নিয়েই। গুরবিন্দর বললেন নিজেদের পরিকল্পনা মতোই খেলবেন। চেঞ্চোকে নিয়ে আলাদা কোনো পরিকল্পনা নেই। তবে দল সাজানোতে পরিষ্কার, আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলেই জয় তুলতে চায় ইস্টবেঙ্গল।

প্রশ্ন একটাই, ডুডু গোল করতে পারবেন তো?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here