কলকাতা: সবই চূড়ান্ত হয়ে গেছে। বাকি শুধু ঘোষণা। আর কিছু আইনি বিষয়। যেগুলো মিটে যাওয়া সময়ের অপেক্ষা। আইপিএল চলছিল। তাই প্রচারের আলোয় আসার সুযোগ ছিল কম। তাই এতদিন স্পনসর সংক্রান্ত ঘোষণা করতে চায়নি কলকাতার দুই প্রধান। রবিবার আইপিএল শেষ। তাই এবার ঘোষণা করে দেবে দুই দলই।

মোহনবাগান যে ১১ কোটি টাকার স্পনসর পেয়েছে, তা ঘোষণা করে দিয়েছেন ক্লাব কর্তারা। কিন্তু নাম জানানি। কিন্তু সূক্ষের খবর, আগের বারের তিন স্পনসর এমপি বিড়লা থাকছে। তাদের সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি রয়েছে। নীলকমল টাকার অঙ্কও বেশ কিছুটা বাড়িয়ে থাকছে বলে খবর। তাদের সঙ্গে কো স্পনসর হিসেবে যুক্ত হচ্ছে পানীল জল সংস্থা অ্যাকোয়াফিনা। মোহনবাগানের প্রধান স্পনসর হচ্ছে সম্ভবত ইন্ডিগো বিমান। মোহনবাগান অ্যাথলেটিক ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি হয়ে গেলেও কোম্পানি সংক্রান্ত সমস্যা এখনও মেটেনি। সেটাও খুব সহজেই মিটে যাবে বলে দাবি ক্লাবকর্তাদের। তবে বিমান সংস্থার নাম এখনও স্বীকার করছেন না কোনো কর্তা। তাই সন্দেহ একটা থেকেই যাচ্ছে।

অন্যদিকে ইউবি গ্রুপের সঙ্গে সমস্যা না মেটায় কোনো প্রধান স্পনসর আনতে আপাতত পারছে না লালহলুদ। একাধিক কোস্পনসরদের নিয়েই এবারের দল তৈরি হচ্ছে। কিন্তু সেই কোস্পনসরদের নামেও থাকছে চমক। লাক্স কোজি এবং টেকনো ইন্ডিয়ার নাম আগেই শোনা গেছিল। কোথাও কোথাও শোনা যাচ্ছে ইয়েস ব্যাঙ্কের নামও। এখন যেটা জানা যাচ্ছে, তা হল সম্ভবত ইস্টবেঙ্গলের হাত ধরে কলকাতা ময়দানে ঢুকে পড়তে চলেছে টাটা গোষ্ঠী। তাঁদের গয়না ব্র্যআন্ড তনিষ্ক ইস্টবেঙ্গলের কো স্পনসর হতে চলেছে।

আগামী সপ্তাহে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার পরই সবকিছু সামনে আসবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here