কলকাতা: মোহনবাগানে গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের নাটক ক্রমশই চরম আকার নিচ্ছে। এবার নতুন সংস্থা খুলে ফেলল বর্তমান কর্ম সমিতি। যা প্রকৃতপক্ষে অঞ্জন-গোষ্ঠী চালিত। নতুন সংস্থা খোলার কারণ হল, যারা মোহনবাগানের নতুন স্পনসর হয়েছে(চুক্তি সই গত সপ্তাহেই হয়ে গেছে বলে খবর), তাঁদের কোন সংস্থার সম্পর্ক থাকবে, তা নিয়ে কিছু সমস্যা রয়েছে। পুরনো যে সংস্থা রয়েছে অর্থাৎ মোহনবাগান ফুটবল ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড, তার সিংহভাগ শেয়ার হোল্ডার হলেন টুটু-সৃঞ্জয়-দেবাশিস। নিজের আনা এই স্পনসরকে ওই সংস্থার সঙঅগে যুক্ত করতে চান না অঞ্জন মিত্র। তাই ‘মোহনবাগান অ্যাথলেটিক ক্লাব লিমিটেড’ নামে এই নতুন সংস্থার সঙ্গেই চুক্তি করবে ওই স্পনসর।

ইতিমধ্যেই মোহনবাগান অ্যাথলেটিক ক্লাবের দুটি সংস্থা রয়েছে, কিন্তু অঞ্জন-গোষ্ঠীর কর্তাদের দাবি, তাতে কোনো সমস্যা হবে না। ওই দুই সংস্থায় কোনো লেনদেন হয়না, এই মর্মে আয়কর রিটার্ন জমা দিলেই সংস্থা দুটির অস্তিত্ব কার্যত নষ্ট হয়ে যাবে। ওই দুই সংস্থার একটি হল ‘মোহনবাগান ফুটবল ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড’। নতুন সংস্থাটির চরিত্র হচ্ছে পাবলিক লিমিটেড। অর্থাৎ ক্লাবের সভ্যরা সংস্থার শেয়ার কিনতে পারবেন।

কিন্তু সমস্যা একটাই, নতুন সংস্থা খোলার সিদ্ধান্ত বার্ষিক সাধারণ সভায় পাস করাতে হবে। আগামী ২৩ জুনের সেই সভা এই ইস্যুতে তোলপাড় হতে চলেছে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। কিন্তু, বর্তমান ক্লাব কর্তাদের দৃঢ় বিশ্বাস, তাঁরা নতুন কোম্পানি খোলার সিদ্ধান্ত পাস করিয়ে নেবেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here