কলকাতা: মোহনবাগানে গোষ্ঠী-নাটক অব্যাহত। গত মরশুমের বকেয়া দেওয়া হলেও আগামী মরশুমের জন্য ফুটবলারদের অগ্রিম এখনো ধরানো যায়নি। কারণ চেকে যে তিনজন সই করেন, তাঁরা হলেন সচিব, সহ সচিব ও অর্থ সচিব। এদের মধ্যে সহ সচিব ও অর্থ সচিব পদত্যাগ করেছেন। অর্থ সচিবের পদত্যাগপত্র গৃহীতও হয়ে গেছে। যদিও এরা দুজনের মোহনবাগানের কোম্পানির বোর্ডে রয়েছেন। ফলে সই তাঁরা নিশ্চয় করবেন কিন্তু দুজনেই বর্তমানে কলকাতার বাইরে। অনেকেই মনে করছেন অর্থ সচিব গোষ্ঠী রাজনীতির কারণে কিছুটা দেরি করছেন।

এ সবের মধ্যেই আগামী ৪ জুন আদালতে যাওয়ার হুমকি দিল বিরোধী গোষ্ঠী। তাঁদের দাবি, গত ১৭ মে বর্তমান বোর্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। বর্তমান কর্মসমিতি বেআইনি। তাঁরা আদালতের কাছে রিসিভার বসানোর দাবি জানাবেন। কিন্তু এই আদালতে যাওয়ার হুমকি নিয়ে মোটেই চিন্তিত নয় শাসক শিবির। তাঁদের বক্তব্য, যেহেতু মেয়াদের শেষ দিনেই ২৩জুন বার্ষিক সাধারণ সভা ডাকা হয়েছে। তাই ততদিন পর্যন্ত বর্তমান কর্মসমিতি কাজ চালাতেই পারে।

এর মধ্যেই নতুন তিন পুটবলারকে সই করাচ্ছে সবুজমেরুন। ফুটবল সচিবের কাছে ২ জন ডিফেন্ডার ও ১জন মিডফিল্ডার চেয়েছিলেন কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী। সেই মতো গত বছর মহামেডানে খেলা ইমরান খানকে সই করানো হয়েছে। এছাড়া সই করানো হয়েছে নেরোকা এফ সি-র দুই ফুটবলারকে। এরা হলেন বসন্ত সিং ও নাগারআইপম। বসন্ত মিডফিল্ডার ও আইপম ডিফেন্ডার।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here