কলকাতা: দেশের সেরা লিখলেই হয়তো হয়ে যেত। কিন্তু আইএসএল-এ নানা দামি বিদেশি খেলেন। আই লিগেও আসতে পারেন নতুন নতুন স্ট্রাইকার। তাই আপাতত ‘অন্যতম’ শব্দটা ব্যবহার করতেই হচ্ছে। কিন্তু কার্যত এই মুহূর্তের বিচারে আই লিগের সেরা স্ট্রাইকার জুটি যে মোহনবাগান বানিয়ে ফেলল, তা বলাই যায়।

খুব বেশি ম্যাচ খেলেননি তিনি। তবে শেষ বেলায় দলে এসেও ৯ ম্যাচে ৭ গোল করে ফেলেছেন এই ২৯ বছর বয়সি স্ট্রাইকার। এমনকি সুপার কাপেও করেছেন ১টি গোল। উগান্ডার হেনরি কিসেক্কার নামই হয়ে গেছে ‘গোকুলমের গোলমেশিন’। তাঁর সঙ্গেই এদিন আগামী ১ বছরের চুক্তি করে ফেলল মোহনবাগান। অর্থাৎ কলকাতা লিগেও দেখা যাবে ডিকা-হেনরি জুটি।

কিন্তু ব্যাপারটা খুব সহজ ছিল না। আই লিগ শেষ হতেই মোহনবাগানের তরফে প্রস্তাব গেছিল হেনরির কাছে। কলকাতায় খেলতে উৎসুক হেনরির যেথেষ্ট আগ্রহও ছিল। কিন্তু বিষয়টা প্রায় কেঁচিয়ে দিয়েছিলেন এক বাগান কর্তা। তিনি সুপার কাপ চলাকালীন হনরিকে চুক্তিতে সই করানোর জন্য ভুবনেশ্বরে হাজির হয়ে গেছিলেন। হেনরির অভিযোগ, চুক্তি সই করতে গিয়ে তিনি দেখেন চুক্তিপত্রটি যথাযথ নয়। সেটার আইনি বৈধতা নিয়ে সন্দেহ হয় তাঁর। তখনই তিনি বেঁকে বসেন। প্রায় বাগানের হাতের বাইরেই চলে গেছিলেন।

তখনই ময়দানে নামেন অন্যান্য সিনিয়র কর্তারা। তাঁরা কোনো মতে পরিস্থিতি সামলে হেনরিকে ঘরে তুললেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন