কলকাতা: দুই গোষ্ঠীর লড়াইয়ের জেরে নতুন সংকট বাগানে। নানা ফ্যাকড়া তুলে মোহনবাগানের সংস্থার এক ডিরেক্টর(যিনি বিরোধী গোষ্ঠীতে রয়েছেন) চিঠি দেন ক্লাবের তহবিল যেখানে রয়েছে, সেই স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সংশ্লিষ্ট শাখায়। তারপরই ক্লাবের লেনদেন আটকে দেয় ওই ব্যাঙ্ক। এতে ঘোরতর সমস্যায় পড়ে যায় অঞ্জন মিত্র গোষ্ঠী। কারণ কয়েকদিনের মধ্যেই ফুটবলারদের নথিভুক্ত করাতে হবে। হেনরি সহ কোনো ফুটবলারকেই টাকা অগ্রিম দেওয়া হয়নি। কলকাতা লিগের শুরু থেকে সবুজমেরুন দল নামাতে পারবে কিনা, তা নিয়েই সংকট তৈরি হয়ে যায়।

যদিও বুধাবার দিনভর দৌড়োদৌড়ি চিঠিচাপাটির পর শাসক গোষ্ঠীর দাবি ব্যাঙ্কের সমস্যা মেটানো গিয়েছে। ফুটবলারদের টাকা দিতে কোনো সমস্যা হবে না। অন্যদিকে শাসক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে জোড়া মামলা করেছেন মহেশ টেকরিওয়াল ও দেবাশিস দত্ত। সেই নিয়েও আইনি লড়াইয়ের ঘুঁটি সাজাচ্ছেন অঞ্জন মিত্র।

যদিও এসবের মধ্যে থমকে নেই দল সংক্রান্ত কাজকর্ম। শাসক গোষ্ঠী সূত্রে খবর, কলকাতা লিগের আগেই স্পনসরদের নাম ঘোষণা করে দেওয়া হবে। বিরোধী গোষ্ঠী যাতে কোনো বাধা তৈরি করতে না পারে, সেই জন্যই ধীরে চলছেন তাঁরা।

তবে একই সঙ্গে শাসক গোষ্ঠীর কর্তারা বলছেন, এই মরশুমে আইএসএল খেলা সম্ভব নয় বাগানের। কারণ তার জন্য যে প্রশাসনিক পরিকাঠামো প্রয়োজন, সেটা ক্লাবের এই মুহূর্তে নেই।

তবে সূত্রের খবর, ইস্টবেঙ্গল যদি আইএসএল খেলে, তাহলে মোহনবাগানও ওই লিগ খেলবে। কলকাতা লিগ চলাকালীনই সব পরিষ্কার হয়ে যাবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here