কলকাতা: এশীয় কোটার ফুটবলার নিয়ে বিতর্ক তো ছিলই, এবার সুপার কাপের বিদেশি সংক্রান্ত বিষয়ে নতুন দাবি তুলল সবুজমেরুন। আইএসএল-এর দলগুলি ২৫ জনের দলে ৮ জন বিদেশিকে নথিভুক্ত করতে পারে। ১৮ জনের দলে রাখতে পারে ৬ জনকে। অন্যদিকে আই লিগের দলগুলি মোট ৬ জন বিদেশিকে নথিভুক্ত করতে পারে। ফলে ১৮ জনের স্কোয়াডের কোনো বিদেশি আহত হলে, তাঁকে সরিয়ে অন্য বিদেশিকে ঢোকানোর সুযোগ আইএসএল-এর দলগুলির থাকলেও, আই লিগের দলগুলির সেটা থাকছে না।

এইখানেই আপত্তি বাগানের শীর্ষকর্তাদের। তাঁদের বক্তব্য, দুই টুর্নামেন্টের দলেই সমান সংখ্যাক বিদেশি নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হোক। এই বিষয়ে ফেডারেশনকে চিঠিও দিচ্ছেন তাঁরা।

তবে এই বিষয়টি নিয়ে দাবি জানানোর পাশাপাশি বাগান কর্তাদের মাথায় থাকছে টাকাপয়সার কথাও। চিঠিতে তাঁরা লিখবেন, বিদেশি সংক্রান্ত বিষয়ের সমাধান করার সময় যেন ক্লাবগুলির ‘আর্থিক স্বাচ্ছন্দ্যের কথা’ মাথায় রাখা হয়। অর্থাৎ, দুই লিগের ক্লাবকেই যদি বিদেশি বাড়ানোর কথা বলা হয়, তাহলে সমস্যায় পড়বে আই লিগের ক্লাবগুলি। কারণ তাঁদের আর্থিক সীমাবদ্ধতা রয়েছে। তাই দুই লিগের দলে বিদেশির সংখ্যা কম থাক কিন্তু সমান থাক-এটাই চাইছে গঙ্গাপারের ক্লাব।

সুপার কাপকে যে কলকাতার বড়ো দলগুলি যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছে, তার অন্যতম কারণ হল, সুপার কাপের পুরস্কার অর্থ পূর্বতন ফেডারেশন কাপের থেকে অনেকটাই বেশি। এই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ২৫ লক্ষ টাকা। রানার্স পাবে ১৫ লক্ষ টাকা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here