mourinho

ওয়েবডেস্ক: বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় ফুটবল লিগ ইংলিশ প্রিমিয়র লিগ। সেই ইপিএলের অন্যতম জনপ্রিয় দল ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। ২০ বারের ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন তারা। নব্বইয়ের দশক এবং ২১ শতকের শুরুতে ইংলিশ ফুটবলে তাদের আধিপত্য ছিল দেখার মতো। বিশ্বের প্রায় সাব তারকা ফুটবলারই সেই ক্লাবে খেলার ইচ্ছা প্রকাশ করতেন।

তবে সময় অনেকটা এগিয়েছে। ম্যানইউ-র সাফল্যকে তাড়া করার জন্য এগিয়ে এসেছে আরও অনেক ঐতিহ্যপূর্ণ ইংলিশ ক্লাব। একসময়ে লিগের বাকি দলগুলি থেকে তারকা খেলোয়াড়, তরুণ তুর্কিদের নিজেদের ঘরে নিয়ে আসতো ম্যানইউ। তবে এখন পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আলাদা। এই মুহূর্তে দলবদলের বাজারে তেমন সক্রিয় দেখাচ্ছে না ম্যানইউকে। তা নিয়ে মুখ খুলেছেন ইউনাইটেড কোচ জোসে মোরিনহো।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “আমি আপনাদের একটা উদাহরণ দিচ্ছি। আশা করি এটা ভাল উদাহরণ হবে। আশা রাখছি আপনারা কথার মানেটা বুঝতে পারবেন। ম্যানইউ-র ইতিহাস, ঐতিহ্য, অবদানের থেকে টটেনহ্যামের ইতিহাস এবং বাকি সব কিছু কি বেশি বড়ো? সম্মান জানিয়েই বলছি টটেনহ্যামও দুর্দান্ত ক্লাব। আমার মনে হয় সবাই এই কথাই বলবে। তবে আমরা টটেনহ্যামে গিয়ে কি ওদের খেলোয়াড়দের ম্যানইউ-তে নিয়ে আসতে পারব? না, কারণ ওরা বিক্রি করবে না।  তবে কিছু বছর আগে টটেনহ্যামের সেরা খেলোয়াড় কে ছিল? মাইকেল ক্যারিক। তার কিছু বছর পর সেরা খেলোয়াড় কে ছিল? দিমিত্রভ বার্বাটভ”।

বার্বাটভ এবং ক্যারিক দু’জনেই প্রাক্তন ম্যানইউ কোচ অ্যালেক্স ফার্গুসনের সময় টটেনহ্যাম থেকে ম্যানইউতে যোগ দেন।

মোরিনহো আরও বলেন, “তবে আমরা কি এখন টটেনহ্যামে গিয়ে হ্যারি কেন, ডেলে আলি, ক্রিশ্চিয়ান এরিকসনদের আনতে পারবো? না। তাহলে এই মুহূর্তে সবচেয়ে শক্তিশালী কারা? ওরা নাকি আমরা?

একই সঙ্গে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ম্যাঞ্চেস্টার সিটির বিশাল অর্থের বিনিময়ে গুয়ারদিওলা এবং বাকি তারকা খেলোয়াড়দের দলে নেওয়া নিয়েও কথা বলেন পর্তুগিজ মোরিনহো।

তিনি বলেন, “ফুটবলে পরিবর্তন হয়। এখন উঁচু মানের খেলোয়াড়কে দলে নেওয়া খুবই শক্ত। ক্লাবগুলো এখন খুব শক্তিশালী এবং খেলোয়াড় বিক্রি করতে চায় না। আগে ছোটো ক্লাবগুলো খেলোয়াড় বিক্রি করার জন্য বসে থাকতো। বলতো, আমার সেরা খেলোয়াড়কে নিয়ে নাও। তুমি খুব শক্তিশালী। তবে এই মুহূর্তে তারা খেলোয়াড় বিক্রি করতে চায় না। খেলোয়াড় কিনে এখন দল গঠন করাও খুবই কঠিন। সব ক্লাব সব কিছু করতে পারে না। গত বছর আমরা লিগে দ্বিতীয় হয়েছিলাম। এই মরশুম আমরা লড়াই করছি ভালো করার জন্য। আমাদের ভালো করতে হবে এবং অন্যদিক দিয়ে চেষ্টা করে যেতে হবে অতীতের ম্যানইউর সঙ্গে যাতে আমাদের তুলনা হয়। অতীতে ম্যানইউ খুব ভালো ছিল। আসল তখন বাকিদের সঙ্গে তফাৎটা অনেক বড়ো ছিল, যেটা এখন আর নেই”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here