এটিকে মোহনবাগানের বড়ো বিপর্যয়, লজ্জাজনক হার মুম্বইয়ের কাছে

0
VIkram Singh of Mumbai City FC
গোল করার পরে মুম্বইয়ের বিক্রম সিংয়ের উল্লাস। ছবি ISL Twitter থেকে নেওয়া।

মুম্বই সিটি এফসি ৫ (বিক্রম সিং ২, আনগুলো, মুরতাদা ফল, বিপিন সিং)

এটিকে মোহনবাগান ১ (উইলিয়ামস)

ফাতোরদা (গোয়া): আগের ম্যাচে হায়দরাবাদ এফসির কাছে হেরে কিছুটা সংশয় ছিল মুম্বই সিটি এফসিকে নিয়ে। গত আইএসএল-এর মতো এ বারেও তারা এটিকে মোহনবাগানকে কি হারাতে পারবে? কিন্তু সব সংশয় উড়িয়ে চ্যাম্পিয়নের মতোই খেলল মুম্বই।

বুধবার ফাতোরদার পি জে এন স্টেডিয়ামে আয়োজিত ম্যাচে আগের বারের চেয়ে আরও বড়ো ব্যবধানে জিতল মুম্বই। এ দিন তারা ৫-১ গোলে হারাল এটিকেএমবি-কে।

বিক্রম সিং ‘হিরো অব দ্য ম্যাচ’

মুম্বইয়ের এই জয়ের পিছনে সব চেয়ে বড়ো ভূমিকা ছিল বিক্রম সিংয়ের। ম্যাচের ৪ মিনিটে এবং ২৫ মিনিটে দু’টি গোল দিয়ে মুম্বইয়ের জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছিলেন। তাঁকেই ‘হিরো অব দ্য ম্যাচ’ নির্বাচিত করা হয়।

বিক্রমের গড়া ভিতের উপরে দাঁড়িয়ে মুম্বই আরও ৩টি গোল করেন – ৩৮ মিনিটে আইগর আনগুলো, ৪৭ মিনিটে মুরতাদা ফল এবং ৫২ মিনিটে বিপিন সিং।

৫-০ গোলে পিছিয়ে থাকার পর ম্যাচের ৬০ মিনিটে মোহনবাগানের হয়ে একমাত্র সান্ত্বনা গোলটি করেন ডেভিড উইলিয়ামস।

দু’টি দলের একাদশ

শনিবারের ডার্বি ম্যাচে মোহনবাগানের যে একাদশ ইস্টবেঙ্গলকে হারিয়েছিল, বুধবার সেই একাদশেরই উপর প্রাথমিক ভাবে নির্ভর করেছিলেন দলের কোচ আন্তোনিও লোপেজ আবাস।

আর মুম্বইয়ের যে একাদশ রবিবার হায়দরাবাদের কাছে হেরে গিয়েছিল, সেই একাদশে দু’টি পরিবর্তন করেন কোচ দেস বাকিংহাম। বুধবার তিনি প্রথম একাদশে খেলান মন্দর রাও দেসাই এবং বিক্রম সিংকে। কোচ যে আস্থা রেখেছিলেন বিক্রমের উপরে, বিক্রম তার যথাযোগ্য মর্যাদা দিলেন।

ম্যাচের অর্ধেক সময় মোহনবাগান খেলল ১০ জনে

এ দিন আগাগোড়াই নিষ্প্রভ ছিল মোহনবাগান। প্রথমার্ধে মুম্বইয়ের আক্রমণের হদিশই করতে পারেনি তারা। ফলে এই অর্ধেই মুম্বই ৩-০ গোলে এগিয়ে যায়। মোহনবাগান মুম্বইয়ের গোল লক্ষ্য করে একটাও শট নিতে পারেনি।

এ দিকে প্রথমার্ধে এই ফল, অন্য দিকে দ্বিতীয়ার্ধে গোদের উপর বিষফোঁড়া। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু হতেই লাল কার্ড দেখে মাঠের বাইরে চলে যেতে হয় দীপক ট্যাংরিকে। দু’টো হলুদ কার্ড দেখার অপরাধে তাঁকে লাল কার্ড দেখতে হয়। ম্যাচের সময়ের অর্ধেকটা মোহনবাগানকে ১০ জনে খেলতে হয়।

দীপকের মাঠ ছাড়ার পরেই আরও এক গোল করে বসে মুম্বই। আর মোহনবাগান ১০ জনে হয়ে গিয়ে প্রথমার্ধের চেয়ে কিঞ্চিৎ বেশি আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে। ফলস্বরূপ ৬০ মিনিটে তারা সান্ত্বনা গোলটি পায়। ম্যাচের বাকি সময়ে মোহনবাগানকে আর গোল হজম করতে হয়নি।

এ দিনের ম্যাচের পর ৩টি খেলে ৬ পয়েন্ট নিয়ে আইএসএল লিগ টেবিলে গোলপার্থক্যের বিচারে শীর্ষস্থানে থাকল মুম্বই। সমসংখ্যক ম্যাচ থেকে সমসংখ্যক পয়েন্ট নিয়ে মোহনবাগান থাকল চতুর্থ স্থানে।

আরও পড়তে পারেন

চূড়ান্ত হল তালিকা, আইপিএলের দলগুলি কাদের রেখে দিল, দেখে নিন      

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন