ned

নেদারল্যান্ডস – ২                                                ফ্রান্স – ০ 

ওয়েবডেস্ক: গত বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জনে ব্যর্থ। ফলে নিজেদের ফের তুলে ধরতে উঠে পড়ে লেগেছে নেদারল্যান্ডস। আর সেই লক্ষ্যে উয়েফা নেশনস লিগকেই টার্গেট করেছে তারা। গত মাসে ঘরের মাঠে চার বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারিয়ে চমক দেয় তারা। ফের চমক তাদের। কোচ রোনাল্ড কিম্যানের তত্ত্বাবধানে তারা হারাল বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে। বিশ্বকাপ জয়ের পর এই প্রথম হারের সম্মুখীন হল ফরাসিরা।

ঘরের মাঠে তারা গোলের মালাও পরাতে পারত লেস ব্লুসদের। তবে সেই রাস্তায় প্রহরী হয়ে দাঁড়ান ফ্রান্সের গোলকিপার লরিস। একার হাতেই আটকালেন দলের বিপদ। সারা ম্যাচে প্রায় ৬০ শতাংশ বল পজেশন ডাচদের। মোট ১৮টি শটের মধ্যে ১১টি ‘অন টার্গেট’। শুরু থেকেই চাপ বাড়াতে থাকে তারা। যার ফল বিরতিতে যাওয়ার কিছুক্ষণ আগে দলকে এগিয়ে দেন লিভারপুলের উইজনালডাম।

দ্বিতীয়ার্ধেও শুরু থেকে একই চিত্র। ব্যবধান বাড়ানোর লক্ষ্যে আক্রমণ বাড়ায় নেদারল্যান্ডস। সুযোগ পেয়েছিলেন বাবেল, কিন্তু কার্যকর হয়নি। এই ম্যাচে বেশ চোখে পড়লেন তিনি। ব্যবধান বাড়াতেই পারতেন অধিনায়ক ভ্যান ডাইক কিন্তু তাঁর হেডারও লক্ষ্যভ্রষ্ট। পরিবর্ত হিসাবে সিসোখো, ডেম্বেলেদের নামিয়ে কিছুটা প্রতি-আক্রমণে ফেরার ইঙ্গিত দেয় ফরাসিরা। কিন্তু তাতে লাভের লাভ কিছুই হয়নি। শেষ দিকে সংযোজিত সময়ে ডি’জং-কে বক্সে ফাউল করায় পেনাল্টি পায় নেদারল্যান্ডস। দলের হয়ে ব্যবধান বাড়ান দিপেই।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here