আইএসএল-এ বড়ো চমক, বেঙ্গালুরু হার মানল ওড়িশার কাছে

0
Odisha fc goals
খাবি এরনেন্ডেজের গোলের পরে। ছবি সৌজন্যে ISL Twitter

ওড়িশা এফসি ৩ (এর্নেন্ডেজ ২, সুয়ারেজ) বেঙ্গালুরু এফসি (আলান কোস্তা)

ভাস্কো (গোয়া): বড়ো অঘটন ঘটে গেল আইএসএল-এ। গত বারের আইএসএল-এ টেবিলের একেবারে নীচে থাকা ওড়িশা এফসির কাছে ৩-১ গোলে হেরে গেল বেঙ্গালুরু এফসি।

আইএসএল-এ এক বারের চ্যাম্পিয়ন, এক বারের রানার্স আপ এবং এক বারের সেমিফাইনালিস্ট এ বার যে ভাবে আইএসএল-অভিযান শুরু করেছিল, তাতে তাদের ঘিরে সমর্থকদের আশা অনেক জোরদার হয়েছে। সুনীল ছেত্রীর বাহিনী প্রথম ম্যাচে ৪-২ গোলে হারায় গত বারের সেমিফাইনালিস্ট নর্থইস্ট ইউনাইটেডকে। কিন্তু বুধবার বেঙ্গালুরুর সমর্থকদের আশায় একেবারে জল ঢেলে দিল ওড়িশা।  

প্রথমার্ধে ১-১

ভাস্কোর তিলক ময়দানে আয়োজিত এই ম্যাচে প্রথমার্ধেই গোল করে এগিয়ে যায় ওড়িশা। ম্যাচের ৩ মিনিটেই গোল পেয়ে যায় তারা। আর এই গোলের কৃতিত্ব যতটা ওড়িশার, দায় ঠিক ততটাই বেঙ্গালুরুর। গোলকিপারের ভুলের মাশুল দিতে হল বেঙ্গালুরুকে।

ওড়িশার প্রান্ত থেকে লম্বা একটি শট ক্লিয়ার করার জন্য বেঙ্গালুরুর গোলকিপার গুরপ্রীত সাঁধু গোল ছেড়ে পেনাল্টি বক্সে অনেকটাই এগিয়ে যান। কিন্তু ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেননি। বল সোজা চলে যায় ওড়িশার খাবি এর্নেন্ডেজের কাছে। তিনি ফাঁকা গোলে বল ঢুকিয়ে দেন।

১২ মিনিটে ওড়িশা ২-০ গোলে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু নন্দকুমার শেখরের শট সোজা চলে যায় গুরপ্রীতের কাছে। ১৯ মিনিটে বেঙ্গালুরুর সুযোগ। কিন্তু প্রিন্স আইবারার শট দারুণ ভাবে বাঁচিয়ে দেন ওড়িশার গোলকিপার কমলজিৎ সিং।

২১ মিনিটে গোল শোধ করে দেয় বেঙ্গালুরু। অনেক উঁচু লাফিয়ে বলে মাথা ছুঁইয়ে কমলজিৎকে পরাস্ত করেন বেঙ্গালুরুর ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার আলান কোস্তা।

দ্বিতীয়ার্ধে ওড়িশার আরও দু’টি গোল

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আবার আক্রমণে উঠে আসে ওড়িশা। এবং তারই ফলস্বরূপ ৫১ মিনিটে আবার লিড পেয়ে যায় তারা। বেঙ্গালুরুর পেনাল্টি বক্সের ঠিক বাইরে থেকে ফ্রি কিক থেকে আবার গোল করলেন এর্নেন্ডেজ। এর্নেন্ডেজের বুট বলকে চুমু খেতেই বল ধেয়ে যায় বেঙ্গালুরুর গোলের দিকে। একেবারে কোণ দিয়ে ঢুকে যায় গোলে। গুরপ্রীত কোনো সুযোগই পেলেন না ধরার।

৬২ মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েছিল বেঙ্গালুরু। কিন্তু পেনাল্টি মিস করলেন অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী। বল রিবাউন্ড করে চলে যায় ক্লাইটন সিলভার কাছে। তিনি ওড়িশার গোলে বল ঢুকিয়ে দিলেও তা গোল বলে গ্রাহ্য হয়নি।

৯০ মিনিটে আরও একটা সুযোগ পেয়েছিল বেঙ্গালুরু। সুনীল ছেত্রী বল পাস করেছিলেন ক্লাইটন সিলভাকে। কিন্তু ঠিক সময়ে গোল ছেড়ে বেরিয়ে এসে ওড়িশার গোলকিপার কমলজিৎ আক্রমণ ব্যর্থ করে দেন।

ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে তৃতীয় গোলটি করে জয় নিশ্চিত করে ওড়িশা। আরিদাই সুয়ারেজের গোলে ওড়িশা ৩-১ গোলে জয়ী হয়।

আরও পড়তে পারেন

কার্যত দ্বিতীয় সারির দল, বৃহস্পতিবার কানপুরে অভিষেক করছেন শ্রেয়স আইয়ার

বেসরকারিকরণের খবর ছড়াতেই শেয়ার বাজারে ঝড়! হতাশ করে দুই ব্যাঙ্ক জানাল, কিছুই জানে না

মাস্টারস্ট্রোক মমতার! বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনের উদ্বোধনে মোদী

ক্যানিংয়ে যুব তৃণমূল নেতা খুনে ব্যবহৃত অটো উদ্ধার

ক্ষমতায় এলেই কৃষক আন্দোলনে শহিদের পরিবারকে ২৫ লক্ষ টাকা, ঘোষণা অখিলেশ যাদবের

এসএসসি দফতরে বামেদের বিক্ষোভ ঘিরে অশান্তি, পুলিশের সঙ্গে ধ্বস্তাধস্তি

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন