সানি চক্রবর্তী: যুবভারতীতে ফুটে ওঠা কুড়ি সুবাস ছড়ানো শুরু করল এতিহাদে।

মাঝের সময়টা মাসখানেকও নয়। অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপের মঞ্চে নিজের দুরন্ত ফুটবলের জেরে প্রতিযোগিতার সেরা ফুটবলারের খেতাবটা পেয়েছিলেন ফিল ফোডেন। ২৮ অক্টোবর কলকাতার যুবভারতী স্টেডিয়ামে পিছিয়ে পড়া ইংল্যান্ড ফাইনালে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছিল তার দাপুটে ফুটবলের ভরে। কলকাতায় হওয়া খেলা সেদিন সুদূর ম্যাঞ্চেস্টারে বসেও নজর রেখেছিলেন পেপ গুয়ার্দিওলা। ম্যাঞ্চেস্টার সিটির প্রশিক্ষক সেদিন খোলামনে প্রশংসা করেছিলেন ১৭ বছরের ফোডেনের। আর তার কয়েকদিনের মধ্যে তরুণ ফুটবলারটির উপরে ভরসা রেখে তাকে সিনিয়র দলের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অভিষেকের সুযোগ করে দিলেন স্প্যানিশ প্রশিক্ষক গুয়ার্দিওলা। সিটির ঘরের মাঠ এতিহাদ স্টেডিয়ামে ফেয়েনুর্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে স্রেফ নামকা ওয়াস্তে অভিষেক নয়, ফোডেনের উপরে ভরসা রেখে ইয়াইয়া তোরের পরিবর্তে তাকে নামালেন লিওনেল মেসির প্রাক্তন কোচ। নেদারল্যান্ডসের দল ফেয়েনুর্ডকে ম্যাঞ্চেস্টার সিটি গোলের মালা পরাবে বলেই মনে করা হয়েছিল। কিন্তু ছন্দে থাকা সিটিজেন্সদের ভালোমতে রুখে দিয়েছিলেন ফেয়েনুর্ডের ফুটবলাররা। ফোডেন দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝি নামার পর থেকে তার ছটফটানির জেরেই ডাচ ক্লাবটির রক্ষণে কিছুটা আতঙ্ক তৈরি হয়। খেলা শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ আগে যার জেরেই গুন্দোয়ানের সঙ্গে চমতকার ওয়ান-টু খেলে রাহিম স্টার্লিং দৃষ্টিনন্দন গোলটা করে সিটির জয় নিশ্চিত করেন।

ফোডেনের মাঠে নামার মুহূর্ত

গুয়ার্দিওলার ভরসার মর্যাদা দিয়ে সিনিয়র দলের জার্সিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অভিষেকটা স্মরণীয় করে রাখলেন ফিল ফোডেন। স্টিপ কুপারের প্রশিক্ষণাধীন অনূর্ধ্ব-১৭ দলের উইঙ্গার এদিন খেললেন তার চিরাচরিত হোল্ডিং মিডফিল্ডার পজিশনে। কিন্তু খেলা এগোনোর সঙ্গে সঙ্গে দুরন্ত ছটফটানিতে অনেকটা জায়গা জুড়েই খেলতে শুরু করলেন তিনি। ফোডেনের এদিনের ইউরোপের সেরা লিগে অভিষেক দেখে কলকাতাবাসীরা গর্ব করে বলতেই পারেন, যুবভারতীর মঞ্চে এই ভবিষ্যতের তারকার উত্থানের প্রথম বড়ো পদক্ষেপের চাক্ষুষ সাক্ষী তারা। এদিনের ১-০ ফলে জয়ের জেরে টানা পাঁচ ম্যাচে জিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রি কোয়ার্টার ফাইনালে স্থান পাকা করে ফেলল ম্যাঞ্চেস্টার সিটি।

নকআউট পর্বে উঠল রিয়াল মাদ্রিদও। অ্যাপোয়েল নিকোসিয়াকে তাদের ঘরের মাঠে প্রত্যাশিতভাবে গোলের মালা পরিয়ে ৬-০ ফলে জিতল তারা। যদিও রিয়াল সমর্থকরা বড়ো ব্যবধানে জয়ের থেকেও স্বস্তি পাবেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর গোলের মধ্যে ফেরায়। দ্বিতীয়ার্ধে দুটো গোল করেছেন সিআরসেভেন। এদিন জিতলেও গ্রুপসেরা হয়ে জিনেদিন জিদানের দল পরের পর্বে যাবে কিনা, তা যদিও নিশ্চিত নয়। দুরন্ত ছন্দে থাকা টটেনহ্যাম হটস্পার এখন গ্রুপশীর্ষে। এদিন বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের ঘরের মাঠ সিগন্যাল ইডুনা পার্কে তারা জার্মান দলটিকে হারিয়ে দিয়েছে ২-১ ফলে। লন্ডনের দলটির পক্ষে গোলদুটো করেছেন হ্যারি কেন ও কিম। গোলের খাতা যদিও ডর্টমুন্ডের পক্ষে আবামেয়াংই খুলেছিলেন। এদিনের হারের জেরে এখনও পর্যন্ত গ্রুপের পাঁচ ম্যাচের মধ্যে একটাও না জিততে পেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিল বরুশিয়া ডর্টমুন্ড।

এদিকে, এদিন ফের রক্ষণের দুর্বলতায় ডুবল লিভারপুল। পরের পর্বে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগও তারা নষ্ট করল। সেভিয়ার বিরুদ্ধে প্রথমার্ধে ৩-০ ফলে এগিয়ে ছিল জুরগেন ক্লপের দল। যদিও দ্বিতীয়ার্ধে তিনটি গোল হজম করে তারা ম্যাচ শেষ করল ৩-৩ ফলে। সংযোজিত সময়ের তৃতীয় মিনিটে শেষ গোলটি হজম করে লিভারপুল। প্রথমার্ধে তিন গোলে এগিয়ে থাকার পরেও আটকে যাওয়াটা প্রায় হারেরই সামিল তাদের কাছে। অপরদিকে, এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সারপ্রাইজ প্যাকেজ বেসিকতাস পৌঁছে গিয়েছে নকআউট পর্বে। তুরস্কের দলটি ঘরের মাঠে পোর্তোর বিরুদ্ধে ম্যাচ ১-১ ড্র রেখে তাদের ক্লাবের ইতিহাসে প্রথমবারের জন্য পরের পর্বের যোগ্যতাঅর্জন করেছে। আর গতবার প্রতিযোগিতায় চমক দিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছানো মোনাকো গ্রুপপ্রব থেকেই বিদায় নিয়েছে। গতমরশুমের দলের প্রায় পুরো স্কোয়াডই এবারে মোনাকো শিবির ছেড়েছে। এদিন ফ্রান্সের দলটিকে ৪-১ ফলে হারিয়ে বরং পরের পর্বে যাওয়ার আশা উজ্জ্বল করেছে আরবি লেইপজিগ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here