copa

ওয়েবডেস্ক: ইতিমধ্যেই শুরু হিয়ে গিয়েছে কোপা আমেরিকা ফুটবল টুর্নামেন্টে। প্রথম ম্যাচেই জয় পেয়েছে অন্যতম ফেভারিট ব্রাজিল। তবে হেরে গিয়েছে আর্জেন্তিনা। দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল টুর্নামেন্টে কোপা। অর্থাৎ কনমেবল। তবে বহু বছর ধরে দেখা যাচ্ছে এই টুর্নামেন্টে আমন্ত্রিত দেশ হিসাবে বহু দলকে আনা হচ্ছে। যেমন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকোকে অতীতে দেখা গিয়েছে।

যারা কী না উত্তর আমেরিকা অর্থাৎ কনকাকাফ সংস্থার অন্তর্ভুক্ত দল। চলতি বছর এশিয়া থেকে জাপান এবং এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন কাতারকে এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা গিয়েছে। তবে দক্ষিণ আমেরিকার টুর্নামেন্টে এশিয়ার দল কেন?

কনমেবল বা দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল সংস্থার অধিকৃত দল মাত্র দশটি। যে কোনো বড়ো টুর্নামেন্টে আয়োজন করার জন্য যথাযথ নয়। যার কারণে আমন্ত্রণ করার রীতি অনেকদিন ধরেই শুরু হয়েছে। ১৯৯৩ সাল থেকে। সেবার মেক্সিকো এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

এছাড়াও, জামাইকা এবং কোস্তারিকার মতো উত্তর আমেরিকার দলও এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করেছে। ১৯৯৯ সালে এশিয়ার প্রথম দল হিসাবে খেলে জাপান। এবছর তারা রয়েছে। সঙ্গে কাতার।

এ বছর ১৬ দলকে আমন্ত্রণ করার ইচ্ছা ছিল কনমেবলের। কিন্তু ইউরোপে নেশনস লিগ এবং আগামী বছর ইউরো কাপের কোয়ালিফায়ারের কারণে তা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। সঙ্গে আফ্রিকান কাপও রয়েছে।

চলতি বছর এশিয়ান কাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল জাপান এবং কাতার। ফলে তাদের কাছে সুযোগ রয়েছে কিছু করে দেখানোর। তারা খেলার মধ্যেই রয়েছে। অন্যদিকে দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলি বিশ্বকাপের পর এই প্রথম কোনো টুর্নামেন্টে নামছে।

পরের বছরও ফের একবার এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। তারপর থেকে প্রতি চার বছর অন্তর। আগামী বছর কোলোম্বিয়া এবং আর্জেন্তিনা মিলিয়ে তা করবে। যদিও দু’দেশের মধ্যে কোনো বর্ডার নেই। একেঅপরের থেকে অনেকটাই দূরে অবস্থিত। আগামী বছরের জন্য ইতিমধ্যেই আমন্ত্রণপত্র গ্রহণ করেছে কাতার ও অস্ট্রেলিয়া।

অতীতে কোপা আমেরিকা শেষ হওয়ার পর বিশ্বকাপের কোয়ালিফায়ার শুরু হয়ে যেত। ফলে ছোটো দলগুলির কাছেও একটা সুযোগ থাকতো কিছু করে দেখানোর। কিন্তু আগামী বছর ফের একবার কোপা অনুষ্ঠিত হবে। এবং ২০২০-র শেষে দিকে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্ব শুরু হবে। ফলে চলতি বছরের শেষে ফের এক বছরে ব্যবধান। যার জেরে বেশ কিছু দলের কাছে এই টুর্নামেন্ট ততটা গুরুত্বপূর্ণ নয়।

উল্লেখ্য, প্রথম ম্যাচে পিছিয়ে পরেও, প্যারাগুয়ের সঙ্গে ড্র করেছে এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন কাতার।  

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here