ronaldo

ওয়েবডেস্ক: এই মুহূর্তে কিছুটা টালমাটাল অবস্থায় ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। আমেরিকার এক মহিলা ক্যাথরিন মাইওগরা জানান, ২০০৯ সালে লাস ভেগাসে তাঁকে ধর্ষণ করেন রোনাল্ডো। শেষমেশ কি প্রমাণ হয় তা তো সময়ই বলবে। তবে তাঁর আগেই কিছুটা চাপে রোনাল্ডো। তারকা ফুটবলারদের কাছে ব্রান্ডিং, স্পসরশিপ খুবই গুরত্বপূর্ণ। রোনাল্ডোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ব্র্যান্ড নাইকি এবং ভিডিও গেম সংস্থা ইএ স্পোর্টস। রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে এমন মামলায় চিন্তায় তারাও।

আরও পড়ুন: ২৪তম শতরান করে কী রেকর্ড করলেন বিরাট?

সম্প্রতি একটি বিবৃতিতে নাইকি জানিয়েছে, “ আমরা এই গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগগুলি সম্বন্ধে ওয়াকিবহল। প্রতিটা মুহূর্তে আমরা এতে নজর রাখছি”।

অন্যদিকে ইএ স্পোর্টস জানিয়েছে, “ রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলি আমরা দেখেছি। আমরা এই ঘটনার প্রতিটা পদক্ষেপ নজরে রাখছি। আমরা মনে করি আমাদের কভারে যে সব অ্যাথলিটরা থাকে তারা কোম্পানির ভাল-মন্দ নিয়ে ওয়াকিবহল”।

সেভ দ্য চিলড্রেন সংস্থার ব্র্যান্ড আম্বাস্যাডারও তিনি। সংস্থা থেকে জানানো হয়েছে, “ আমরা এমনটা শুনে ভেঙে পড়েছিলাম। এই বিষয়ে আমরা আরও জানার চেষ্টা করছি”।

জাপানি কোম্পানি এমটিজি-র সিক্সপ্যাড ট্রেনিং গিয়ারের সঙ্গেও যুক্ত রোনাল্ডো। সংস্থার ইউরোপের জেনারেল ম্যানেজার জানান, “রোনাল্ডো ব্যবসার একটা অঙ্গ। তবে সিক্সপ্যাডের একমাত্র মুখ ও নয়। যার ফলে এই ধর্ষণ অভিযোগ নিয়ে আমি কিছু বলতে পারি না। এবং এটা আমাদের ব্যবসার সঙ্গেও খাপ খায় না”।

এই ঘটনার ফলে একইসঙ্গে জাতীয় দল থেকেও বাদ পড়লেন রোনাল্ডো। চলত মাসের উয়েফা নেশনস লিগের পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১১ অক্টোবর এবং তিন দিন পর স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলিতে তাঁকে পাবে না পর্তুগাল।

এ বিষয়ে জাতীয় দলের কোচ ফার্নান্দো স্যান্টস জানান, “আমরা একসঙ্গে বসেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অর্থাৎ আমি, রোনাল্ডো এবং পর্তুগিজ ফুটবল ফেডারেশন। আমরা ঠিক করেছি যে খেলোয়াড় (রোনাল্ডো) উপস্থিত থাকবেন না। সিলেকশনের জায়গাও থাকবেন না। পরবর্তী দুটি সিলেকশন অর্থাৎ এই মাস এবং আগামী মাসে রোনাল্ডো আমাদের সঙ্গে থাকবে না”।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন