সানি চক্রবর্তী: ইতালিকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে রাশিয়ায় যাওয়ার ব্যাপারে ফেভারিট ছিল তারাই। তবে এদিন ম্যাসিডোনিয়ার কাছে ইতালি হোঁচট খেতেই গ্রুপের শেষ ম্যাচে খেলতে নামার আগেই গ্রুপ জি-এর চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বকাপের ছাড়পত্র জোগাড় করে ফেলল স্পেন। ২০১০-এর বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা এদিন তাদের ম্যাচে সহজেই ৩-০ ফলে জিতেছে। আলবেনিয়ার বিরুদ্ধে একতরফা আক্রমণাত্মক ম্যাচে আরও বড়ো ব্যবধানে জিততে পারত স্পেন। খেলার মাত্র ২৬ মিনিটের মধ্যে ম্যাচের তিনটি গোল করে ফেলে খুয়ান লুপোতেগুইয়ের প্রশিক্ষণাধীন দল। ১৬ মিনিটে রোদরিগো, ২৩ মিনিটো ইসকো ও ২৬ মিনিটে থিয়াগো গোল তিনটি করেন।

এদিকে বিশ্বকাপের যোগ্যতাঅর্জন পর্বে টানা ১৫ বছরের বেশি সময় (২০০২-এর জুন) ঘরের মাটিতে অপরাজিত থাকার অনন্য রেকর্ড গড়ল ইতালি। যদিও এদিন দূর্বল ম্যাসিডোনিয়ার সঙ্গে ১-১ ড্র তাদের কাছে হারের মতোই বিঁধবে। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার কিছু আগে চেলিনির গোলে লিড নিয়েছিল আজুরিরা। তবে ৭৭ মিনিটে ত্রাজকোভস্কির গোল করে ম্যাসিডোনিয়ার সমর্থকদের উদ্দাম নাচের সুযোগ করে দেন। বিশ্বকাপের সমীকরণ থেকে বেরিয়ে গেলেও ইতালিকে রুখে দিয়ে বড়ো প্রাপ্তি সঙ্গে করে নিল তারা। এদিকে, ইতালির কাছে সুযোগ থাকবে দ্বিতীয় পর্বের কোয়ালিফায়ারে খেলে বিশ্বকাপের যোগ্যতাঅর্জন করার। নিয়মানুযায়ী, ইউরোপের দেশগুলির মধ্যে নটি গ্রুপের চ্যাম্পিয়নরা সরাসরি বিশ্বকাপের ছাড়পত্র পাবে। আর বাকি চারটি স্থানের জন্য পরের পর্বের লড়াই হবে আটটি সেরা দ্বিতীয় স্থানে থাকা দেশগুলির মধ্যে।

ওয়েলস হারাল জর্জিয়াকে

এদিকে জর্জিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপের আশা জিইয়ে রাখল ওয়েলস। গ্যারেথ বেলের অনুপস্থিতি তাদের পক্ষে জয়সূচক গোলটা করলেন টম লরেন্স। ৯ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে ওয়েলস আপাতত উঠে এল গ্রুপ ডি-এর দ্বিতীয় স্থানে। আর বিশ্বকাপের সমীকরণ থেকে ছিটকে যাওয়া অস্ট্রিয়া এদিন সার্বিয়াকে (১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে) ৩-২ ফলে হারিয়ে দেওয়ায় সরাসরি বিশ্বকাপে যাওয়ার সুযোগও কিন্তু রইল ইউরো কাপের সেমিফাইনালিস্টদের কাছে। এদিন মলডোভাকে ২-০ হারিয়ে ওয়েলসের ১ পয়েন্ট পেছনে রইল আয়ারল্যান্ড। সোমবার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হবে ওয়েলস ও আয়ারল্যান্ড। সোমবার সার্বিয়া খেলবে জর্জিয়ার বিরুদ্ধে।

এই প্রথম বিশ্বকাপ খেলার পথে আইসল্যান্ড

পাশাপাশি ইউরো কাপে নজরকাড়া আইসল্যান্ডও শেষল্যাপে এসে কার্যত চমকে দেওয়ার মুখে। তুরস্ককে ৩-০ ফলে দাপটে হারিয়ে ৯ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে তারা পৌঁছে গেল গ্রুপ আই-এর শীর্ষে। আর ফিনল্যান্ডের কাছে শেষলগ্নে গোলহজম করে ১-১ ফলে আটকে দ্বিতীয় স্থানে (১৭ পয়েন্ট) নেমে গেল ক্রোয়েশিয়া। সমসংখ্যক ম্যাচে ইউক্রেনও একই পয়েন্টে দাঁড়িয়ে। কিন্তু গোলপার্থক্যের ভিত্তিতে তারা রয়েছে তিন নম্বরে।

আরও পড়ুন : ফের ড্র, একরাশ অঙ্কের মুখে মেসিদের রাশিয়ায় বিশ্বকাপ খেলার সম্ভাবনা 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here