কলকাতা: মোহনবাগান নির্বাচনের ঘোলা জলে মাছ ধরতে নেমে পড়লেন তৃণমূলের সাসপেন্ডেড সাংসদ কুনাল ঘোষ। এদিন তিনি ক্লাবে গিয়ে মনোনয়ন পত্র তোলেন। তাঁর দাবি, তিনি কারও পক্ষে নেই, একক ভাবে ভোটে লড়তে চান। যদিও তিনি টুটু-অঞ্জনের একজোট হওয়ার পক্ষে। সোমবার টুটু-অঞ্জনের বৈঠকে যদি ইতিবাচক ফলাফল হয়, তাহলে তিনি মনোনয়নপত্র জমা দেবেন না। কিন্তু অনেকেই মনে করছেন বিষয়টা এত সহজ নয়। সম্ভবত কোনো রাজনৈতিক শক্তির ছত্রছায়াতেই বাগান নির্বাচনে ভূমিকা নিতে চাইছেন তিনি।

অন্যদিকে সোমাবারের প্রস্তাবিত বৈঠক নিয়ে দুই পক্ষে দু’রকম কথা শোনা যাচ্ছে। টুটু গোষ্ঠী বলছে বৈঠক হবে না। অঞ্জন গোষ্ঠী বলছে বৈঠক হবে। প্রকৃতপক্ষে রাজ্যের বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী দুই পক্ষের মধ্যে বোঝাপড়া করানোর জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। বস্তুত, তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব চান, টুটু-টুম্পাইকে রেখেই মোহনবাগান চলুক। কিন্তু শাসক দলের বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট নেতা অঞ্জন গোষ্ঠীর সঙ্গে আছেন। এই পরিস্থিতিতে বোঝাপড়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

যদিও চলছে দর কষাকষির খেলা। নতুন কর্মসমিতিতে কোন গোষ্ঠীর কতজন সদস্য থাকবেন, তাই নিয়ে লড়াই যেমন আছে। তেমনই নতুন কর্মসমিতি ক্ষমতায় আসার পর মোহনবাগান সংস্থার ডিরেক্টর বোর্ডের চরিত্র নিয়েও চলছে টানাপড়েন। শোনা যাচ্ছে কোম্পানির শেয়ার ভাগাভাগি নতুন করে করা নিয়েও বিস্তর আলোচনা হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন