ron

ওয়েবডেস্ক: ইংল্যান্ড, স্পেনে সাফল্যের সঙ্গে খেলার পর এই মুহূর্তে ইতালির ঐতিহ্যপূর্ণ দল জুভেন্তাসে সিআর সেভেন। ইংল্যান্ডে থাকাকালীন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় ছিলেন। দলকে প্রচুর সাফল্যও এনে দিয়েছিলেন। তবে ম্যানইউতে থাকাকালীন এক বিতর্কের সম্মুখীন হন তিনি।

২০০৬ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল পর্তুগাল এবং ইংল্যান্ড। সেই ম্যাচে লাল কার্ড দেখেন ইংল্যান্ড তথা রোনাল্ডোর ম্যানইউতে প্রাক্তন সতীর্থ ওয়েন রুনি। পর্তুগালের রিকার্ডো কারভালহোকে মারিয়ে দিয়েছিলেন রুনি। এই ঘটনা হওয়ার পরই পর্তুগাল বেঞ্চের দিকে তাকিয়ে চোখ মারেন রোনাল্ডো। যার ফলে ইংলিশ সংবাদমাধ্যমে রোনাল্ডোকে নিয়ে রীতিমতো হইচই পরে যায়। তবে এই ঘটনার পর ম্যাঞ্চেস্টারে ফিরে যেতে ভয় পান রোনাল্ডো। সম্প্রতি গোলহ্যাঙ্গারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই নিয়েই মুখ খুললেন রোনাল্ডো।

রোনাল্ডো জানান, “মিডিয়া এটাকে নিয়ে বড়ো নাটক করেছিল যা কখনই হয়নি। যখন আমি ইংল্যান্ডে (ম্যানইউ) ফিরে গেলাম আমি কিছুটা ভয় পেয়েছিলাম। রুনির জন্য নয়। ইংল্যান্ড সমর্থকদের জন্য। ওরা খুব বড়ো গল্প তৈরি করেছিল আমার চোখ মারা নিয়ে। তবে এটা রুনিকে কেন্দ্র করে নয়, অন্য এক কারণে। ওই সময়টা আমার পক্ষে খুব শক্ত ছিল। কারণ আমি ভেবেছিলাম যখন আমি ইংল্যান্ডে (ম্যানইউতে) ফিরে যাব তখন সমর্থকরা আমাকে নিয়ে স্টেডিয়ামে নিন্দা করবে। তবে এটা এখন অতীত। রুনির সঙ্গে এই নিয়ে কথাও হয় ম্যাঞ্চেস্টারে ফিরে যাওয়ার পর। ফিরে গিয়ে আমরা ওটা নিয়ে কথা বলি এবং ও আমার দিকটা বুঝতে পারে। এমনকি ও আমাকে এটাও বলে, রোনাল্ডো এটা অতীত। বর্তমান নিয়ে কথা বলা যাক। চল একসঙ্গে ফের অনেক ট্রফি জিতি। ও খুব ভালো মানুষ। ও খুব শক্তিশালী ছিল। ওর শুটিং ছিল দুর্দান্ত। অনেক গোল করেছে। আমি ওকে মিস করি। ভবিষ্যতের কথা কেউ জানে না। হয়তো আমরা একদিন ফের একসঙ্গে খেলব”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here